আলোকচিত্র : শান্তিনিকেতনে কিছুদিন -০২

in আমার বাংলা ব্লগlast month

শান্তিনিকেতনের প্রার্থনা সভা দারুন একটি প্লেস । রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হিন্দু না হওয়া সত্ত্বেও সকল ধর্মের মানুষদেরকেই ভালোবাসতেন । তাঁর কাছে ব্রাম্ম যেমন হিন্দু -মুসলিমও তেমন । রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের পরিবার ছিল কলকাতার ব্রাম্মদের মাথা । এরপরেই ছিল রায় পরিবার । অর্থাৎ, সত্যজিৎ রায়ের পরিবার । তাঁরাও হিন্দু না হওয়া সত্ত্বেও কখনো হিন্দুদের সাথেই তাঁদের ছিল ওঠা বসা এমনকি বৈবাহিক সম্পর্ক পর্যন্ত স্থাপন করেন তাঁরা হিন্দুদের সাথে । ব্রাম্মরা ছিল উদার মনষ্ক । প্রচিলত হিন্দু সমাজের নানান ধর্মীয় কুসংস্কারের বেড়াজাল ছিন্ন করেই ব্রাহ্মধর্মের জন্ম । ব্রাম্ম ধর্মে মূর্তি পূজা নিষিদ্ধ । একেশ্বর পরম ব্রম্মে বিশ্বাসী ব্রাম্মরা । আমরা হয়তো অনেকেই জানি না কিন্তু, কাজী নজরুল ইসলামের দ্বিতীয় স্ত্রী প্রমীলা দেবী (আশালতা সেনগুপ্ত) ছিলেন ব্রাম্ম । নজরুল-প্রমীলার এই বিবাহে কিন্তু ব্রাম্ম সমাজ বিশাল বাধার সৃষ্টি করে । কিন্তু, ব্রাম্মদের মাথা ঠাকুর পরিবারের এই বিয়েতে প্রচ্ছন্ন সম্মতি থাকায় শেষমেশ ব্রাম্মরা বিয়ে আটকাতে পারেনি ।

যাই হোক, আমরা কিন্তু প্রার্থনা গৃহে প্রবেশ করতে পারিনি । সিকিউরিটি ফোর্স দিয়ে ঘেরা ছিল সেদিন । বিশেষ প্রার্থনা সভা সেটি । বাংলা বছরের শেষ সন্ধ্যার প্রার্থনা ছিল সেদিন । পরেরদিন পহেলা বৈশাখ । তবুও রিকোয়েস্ট করাতে সিকিউরিটির এক অফিসার জানালেন এখুনি একেবারে পুরো সাদা ড্রেস পরে আসলে আপনারা প্রবেশ করতে পারবেন । ছেলেদের সাদা পাজামা-পাঞ্জাবি এবং মেয়েদের সাদা শাড়ি-ব্লাউজ । দুর্ভাগ্যের বিষয় সাদা ড্রেস ছিলই না কোনো আমাদের কাছে ।

যাই হোক তখন অফিসার জানালেন আগামীকাল পয়লা বৈশাখে সকাল সাতটায় অন্তত একটি সাদা ড্রেস পরে আসলে আপনারা সপরিবারে মন্দিরে ঢুকতে পারবেন । যাই হোক আমরা সেদিন সন্ধ্যায় বাইরে থেকেই আলো-ঝলমলে ব্রাম্ম মন্দির দেখেই ফেরত চলে এলুম হোটেলে । আগামীকাল পহেলা বৈশাখ থেকে ঘোরাঘুরি স্টার্ট ।


IMG_20220415_110030.jpg

ডাব খাওয়া এখনো শেষ হয়নি । চলছে ।

তারিখ : ১৫ এপ্রিল ২০২২
সময় : সকাল ১০ টা ১৫ মিনিট
স্থান : শান্তিনিকেতন, বোলপুর, বীরভূম, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত ।


IMG_20220415_110054.jpg

আমাদের এমন ঘোরাঘুরি টিনটিনবাবুর মোটেও পছন্দ হয়নি । তার ঘুম পেয়েছে ।

তারিখ : ১৫ এপ্রিল ২০২২
সময় : সকাল ১০ টা ২০ মিনিট
স্থান : শান্তিনিকেতন, বোলপুর, বীরভূম, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত ।


IMG_20220415_111921.jpg

গ্রাম ছাড়া ওই রাঙা মাটির পথে এখন আমরা । রবিঠাকুরের আমলের সেই রাঙা মাটির মেঠো পথ এখন কালো পিচঢালা রাস্তা ।

তারিখ : ১৫ এপ্রিল ২০২২
সময় : সকাল ১০ টা ৪০ মিনিট
স্থান : শান্তিনিকেতন, বোলপুর, বীরভূম, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত ।


IMG_20220415_115826.jpg

IMG_20220415_115839.jpg

IMG_20220415_115857.jpg

বুদ্ধের বিশাল ধ্যানরত মূর্তি । স্থানটির নাম পঞ্চশীল । ঘন শালবনের জঙ্গলের মধ্যে কিছু স্থান পরিষ্কার করে পঞ্চশীল স্থাপন করা হয়েছে । খুবই মনোরম পরিবেশ ।

তারিখ : ১৫ এপ্রিল ২০২২
সময় : সকাল ১১ টা ০০ মিনিট
স্থান : শান্তিনিকেতন, বোলপুর, বীরভূম, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত ।


IMG_20220415_120600.jpg

IMG_20220415_120619.jpg

শালবনের মধ্যে সোনাঝুরির বিখ্যাত হাট । সোনাঝুরিতে ঢোকার মুখে পাথরে নির্মিত এই পাখির মূর্তিটি বিশেষ করে চোখে পড়ে ।

তারিখ : ১৫ এপ্রিল ২০২২
সময় : সকাল ১১ টা ১০ মিনিট
স্থান : শান্তিনিকেতন, বোলপুর, বীরভূম, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত ।


IMG_20220415_120655.jpg

IMG_20220415_120702.jpg

এদিন হাটবার ছিল না । তাই আদিবাসীদের বাঁশের মাচা গুলো ফাঁকাই পড়ে ছিল ।

তারিখ : ১৫ এপ্রিল ২০২২
সময় : সকাল ১১ টা ১৫ মিনিট
স্থান : শান্তিনিকেতন, বোলপুর, বীরভূম, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত ।


IMG_20220415_120733.jpg

IMG_20220415_120736.jpg

বেলা প্রায় এখন ১২ টা । বিশাল গরম লাগাতে পাঞ্জাবি খুলে ফেলা হয়েছিল টিনটিনের ।

তারিখ : ১৫ এপ্রিল ২০২২
সময় : সকাল ১১ টা ৪০ মিনিট
স্থান : শান্তিনিকেতন, বোলপুর, বীরভূম, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত ।


IMG_20220415_120931.jpg

আদিবাসীদের গাঁয়ে তৈরী মালাই ক্ষীর চেখে দেখলুম একটু আর কি ।

তারিখ : ১৫ এপ্রিল ২০২২
সময় : সকাল ১১ টা ৪৫ মিনিট
স্থান : শান্তিনিকেতন, বোলপুর, বীরভূম, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত ।


ক্যামেরা পরিচিতি : OnePlus
ক্যামেরা মডেল : EB2101
ফোকাল লেংথ : ৫ মিমিঃ


Sort:  

I think it's great when you can learn something new unexpectedly. I was willing to tell you that I felt so intrigued about your photograph with the eyes covered that I whished to speak your language. So, my curiosity took me to a Google search and I knew that Bengali or Bangla is the 5th most important language in the world. Liked the rest of the photos...and I'm still intrigued. Greetings

Thank You for sharing Your insights...

 last month 

রবীন্দ্রনাথ যে হিন্দু ছিলেন না এটা আমার জানা ছিল না। বেশ কিছু নতুন তথ্য জানতে পারলাম আপনার লেখা থেকে দাদা। তবে টিনটিন বাবুর আড়মোড়া ভাঙা দেখে মনে হচ্ছে তার বেশ ঘুম পেয়ে গেছে। বৌদিকে দেখে ও বেশ টায়ার্ড মনে হচ্ছে। তবে আমার কাছে প্রার্থনা স্থানে ঢোকার নিয়ম একটু বেশি কড়া মনে হয়েছে। পরবর্তী পর্বের অপেক্ষায় থাকলাম।

 last month 

তাদের সেই মানবিক গুন গুলো আজ আমাদের এক করে রেখেছে,আর এই জন্যই তো তাদের ভালোবাসি।আর আজকে জনার পর ভালোবাসা টা তাদের প্রতি আরো বেড়ে গেলো।

তবে একটি বিষয় বুঝলাম না ওখানে ঢুকার জন্য সাদা ড্রেস কেনো পড়তে হবে?

 last month 

দাদা প্রথমে আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ আপনি রবি ঠাকুরের শান্তিনিকেতন সম্পর্কে অসাধারণ তথ্য দিয়েছেন ।আসলেই তিনি ছিলেন অসাম্প্রদায়িক তার কাছে ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সবাই সমান গুরুত্ব পেতেন। এছাড়াও আপনি সত্যজিৎ রায়ের পরিবার সম্পর্কে লিখেছেন ।ব্রাহ্ম সমাজ প্রতিষ্ঠার কাহিনী আপনি খুব সুন্দর ভাবে তুলে ধরেছেন যে তারা হিন্দু ধর্মের কুসংস্কার ছিন্নভিন্ন করে ব্রাহ্মসমাজ প্রতিষ্ঠা করেছেন।অপরদিকে বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের স্ত্রী প্রমিলা দেবী ছিলেন ব্রাহ্ম ধর্মের। এরপর আপনি খুব সুন্দর ভাবে শান্তিনিকেতনের ফটোগ্রাফি গুলো তুলে ধরেছেন। এর আগে বৌদির ফটোগ্রাফি গুলো আমরা দেখেছিলাম। প্রতিটি ঐতিহাসিক স্থাপনা দেখে খুবই ভালো লাগলো। তবে এত সব ফটোগ্রাফির মাঝে আমাদের প্রিয় বৌদি ও টিনটিন বাবুকে অনেক কিউট লাগছে। আপনাকে নিয়ে আর কি বলব আপনাকে তো দেখাই যায় না যাইহোক আপনি উল্লেখ করেছেন আদিবাসীদের তৈরি মালা ক্ষীর আপনি চোখে দেখেছেন কিন্তু আপনার চোখ তো বাধা 🤪🤪😋🤭।

যাইহোক এত সুন্দর একটি গুরুত্বপূর্ণ ফটোগ্রাফি পোস্ট আমাদের মাঝে তুলে ধরার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

 last month 

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হিন্দু না হওয়া সত্ত্বেও সকল ধর্মের মানুষদেরকেই ভালোবাসতেন ।

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তিনি যে হিন্দু ধর্মাবলম্বী ছিলেন না তা আমার জানা ছিলোনা। আপনার এই পোস্টের মাধ্যমে এই বিষয়টি প্রথম জানতে পারলাম। তবে যাই হোক আপনি
আপনার পরিবারের সাথে শান্তিনিকেতনে অনেক সুন্দর সময় কাটিয়েছেন দেখেই বোঝা যাচ্ছে। আপনি আপনার কাটানো মুহূর্ত এবং অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো আমাদের মাঝে উপস্থাপন করেছেন এই জন্য আপনাকে জানাচ্ছি ধন্যবাদ। সেই সাথে আপনার জন্য শুভকামনা ও ভালোবাসা রইলো দাদা।❤️❤️

 last month 

অসাম্প্রদায়িক চেতনার মানুষ ছিল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, যদিও ব্যাপারটি আগে থেকেই হালকা জানতাম। তবে আজ পুরোপুরি জেনে বেশ ভালো লাগলো আর তাছাড়াও বেশি ভালো লেগেছে কাজী নজরুল ইসলামের বিয়ের ব্যাপারটি জেনে । যদিও সেটা আমার জানা ছিল না । সাদা কাপড় থাকলে হয়তো মন্দিরটাতে ঘুরতে পারতেন ভাই । আর সর্বোপরি বেশ ভালো সময় কাটিয়েছেন শান্তিনিকেতনে তা দেখেই বোঝা যাচ্ছে । যদিও এই কথা আমি বিগত সময়েও বলেছিলাম । বেশ অজানা কিছু তথ্য পেয়েছি আজকের পোস্টের মাধ্যমে
বেশ ভালোই লেগেছে ।

শুভেচ্ছা রইল

 last month 

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হিন্দু না হওয়া সত্ত্বেও সকল ধর্মের মানুষদেরকেই ভালোবাসতেন

প্রিয় দাদা আপনার আজকের পোস্টি পড়ে অনেক তথ্য জানতে পেলুম, সত্যি বলতে আমারও এটা পরিপূর্ণ ভাবে জানা ছিলো না যে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হিন্দু ছিলেন না, আজকে একেবারেই বিষয়টি ক্লিয়ার হলুম, এছাড়াও কাজী নজরুল ইসলামের বিয়ের ঘটনাটি বেশ মজা লেগেছে আমার।

আর এটি সত্যি দুঃখের বিষয় সাদা কাপরের জন্য প্রার্থনা গৃহে প্রবেশ করতে পারেননি , বিষয়টি সত্যি অনেক দুঃখজনক ছিলো, যাইহোক দাদা শান্তিনিকেতনের দ্বিতীয় পর্বে অনেক সুন্দর সুন্দর ফটোগ্রাফি দেখতে পেলুম, এবং অনেক না জানা বিষয় গুলো জানতে পারলুম, পরের পর্ব গুলোর অপেক্ষায় রইলাম প্রিয় দাদা।

 last month 

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিল বিশ্বকবি। আসলেই তার কাছে হিন্দু-মুসলিম যার ধর্মের কোনও বালাই ছিল না। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সেই শান্তিনিকেতনের কথা অনেক সাহিত্য গল্প পড়েছি। যাওয়ার ইচ্ছে রয়েছে একবার রয়েছে একবার। শান্তিনিকেতনের ঘোরাঘুরি করে বেশ আনন্দ উপভোগ করেছেন। আপনার জন্য অনেক অনেক শুভকামনা রইল।

 last month 

শান্তিনিকেতন সম্পর্কে যত জানতে পারছি ততই অন্যরকম একটা ভালো লাগা কাজ করছে। শান্তিনিকেতনের প্রার্থনা সভায় বেশ কঠোর নিয়ম মানা হয় দেখছি। তবে আপনাদের যদি সাদা পোশাক থাকত তাহলে আপনাদের ঘুরে আসা লাগতো না বিষয়টি দুঃখজনক। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হিন্দু ছিলেন না এই তথ্যটি আমি একদমই জানতাম না। কিন্তু ব্রাহ্ম যে হিন্দু না এটাও জানতাম না। হিন্দু ধর্মের নানা কুসংস্কারের বেড়াজাল ছিন্ন করে ব্রাহ্ম ধর্ম প্রতিষ্ঠা এই তথ্যটিও নতুন বিশেষ করে ব্রাহ্ম ধর্ম যে আলাদা একটা ধর্ম জানতে পারাই ভালো লাগার কেন্দ্রবিন্দু। আসলে বৈশাখের শুরুতে ওই দিনগুলোতে গরম একটু বেশি ছিল সেটাই মনে হচ্ছে আপনাদের ক্লান্তির মূল কারণ। আর আদিবাসীদের মালাই ক্ষীর চেখে দেখার বিষয়টি অসাধারণ ছিল দাদা।
ধন্যবাদ আপনাকে।
অপেক্ষায় রইলাম।

 last month 

সত্যি বলেছেন দাদা শান্তিনিকেতন এর পরিবেশ গুলো খুবই দারুণ। তবে আজকের এই পোস্ট থেকে অনেক কিছুই জানতে পারলাম যা আমাদের জন্য শিক্ষণীয় ছিল। তবে আমাদের টিনটিন বাবু আপনার ঘোরাফেরা পছন্দ হয়নি তার ঘুম পাচ্ছে। কিছুক্ষণ পর দেখা গেছে আদিবাসীদের বাঁশের মাচায় বৃন্দাস স্টাইল এ দাঁড়িয়ে আছে, বেশ দারুন লালাগছে। দাদা একটা কথা ঠিকই বলেছেন, বড় বড় মনীষীরা জাতি ভেদাভেদ কখনই করেন নি। আমাদেরকে আপনার কাটানো ভালো লাগার মুহূর্ত গুলো শেয়ার করার জন্য আপনার প্রতি রইল ভালোবাসা অবিরাম।

 last month 

টিনটিন বাবুকে দেখেই বোঝা যাচ্ছে তার খুবই ঘুম পাচ্ছে। এজন্যই দেখতে অনেক ক্লান্ত লাগছে। আপনি শান্তিনিকেতনে আপনার পরিবার নিয়ে ভালো সময় কাটিয়েছেন দাদা। আপনার ফটোগ্রাফি গুলো দেখেই বোঝা যাচ্ছে। যদিও এই গরমে ঘুরতে যাওয়া খুবই কষ্টের ব্যাপার। আরেকটি কথা হল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর যে হিন্দু ছিল না সেটা আপনার পোষ্ট থেকে প্রথম জানতে পারলাম।

 last month 

ব্রাম্ম এদের সম্পর্কে আগে কখনো শুনিনি। এটা যে একটা ধর্ম সেটা আপনার পোস্ট থেকেই জানতে পারলাম। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর সত্যি শুধু বড় মাপের লেখক না অনেক বড় মাপের একজন মানুষও ছিলেন।

JvFFVmatwWHRfvmtd53nmEJ94xpKydwmbSC5H5svBACH81Ks6HFLxWA9hrtqk96X8i4Ny14W1K8yhZ9FQZaHwrx84cqXauqXuUL5fmBtv7eT7pJwDgcRR33GYezea14n4qRioFgcea.jpeg

টিনটিনের এই লুকটা যা লাগছে না। এককথায় অসাধারণ। মনে হচ্ছে ও আপনাদের এইরকম চালচলনে মহা বিরক্ত হা হা।

 last month 

দাদা শুরুতে যে বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন এসব একদমই জানতাম না। আজ নতুন করে অনেক কিছু জানলাম। প্রার্থনা সভার জন্য যে বিশেষ ড্রেস প্রয়োজন এই ব্যাপারটাও আজ মাথায় ঢুকিয়ে নিলাম। কোনদিন যদি যাই তাহলে সাথে নিয়ে যাব। আর সব ছবির মাঝে টিনটিন বাবুর প্রথম ছবি টা দারুন লেগেছে। বিরক্তিতে ঘুম ঘুম ভাব 😊😊। বৌদির মত অনেকটা মিষ্টি একটা মুখ পেয়েছে ❤️❤️❤️❤️

 last month 

দাদা আমি এতদিন জানতাম রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হিন্দু ধর্মে বিশ্বাসী ছিলেন কিন্তু আজ জানলাম অন্য কথা। ব্রাহ্ম তথা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর পরিবার সম্পর্কে অনেক কথা জানতে পারলাম। তবে খারাপ লাগলো যে আপনারা মন্দিরে ঢুকতে পারলেন না। সবশেষে সুন্দর কিছু ফটোগ্রাফির জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

Hi @rme,
my name is @ilnegro and I voted your post using steem-fanbase.com.

Come and visit Italy Community

 last month 

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হিন্দু ছিলেন না তা আজকে জানলাম। ব্রাম্ম ধর্ম কি হিন্দু ধর্ম না? সত্যজিৎ রায় ও তো হিন্দু বলেই জানতাম। নতুন তথ্য জানলাম আজকে। আপনার পোস্ট মানেই নতুন কিছু শেখা, জানা।

আদিবাসীদের গাঁয়ে তৈরী মালাই ক্ষীর চেখে দেখলুম একটু আর কি।

আসলেই কি চেখে দেখলেন শুধু? নাকি ৭/৮ টা খেয়ে সাবার করেছেন?

 last month 

গোপন কথাটি রবে না কি গো গোপনে ?
আপনাদের ঠেলায়

 last month 

ওহ এটি গোপন ছিল। আগে বলবেন না। আপনি তো এক চামচের বেশি খেতে পারেন না জানি তো আমরা।😉😉

 last month 

অতিরিক্ত গরমের কারণে আমাদের টিনটিন বাবু জামার বোতাম খুলে ফেলে দিয়েছে। টিনটিন বাবুর এই স্টাইল দেখে দেখে মনে হচ্ছে আমাদের টিনটিন বাবু একজন ছোট মডেল । অনেকটা মডেলদের মতোই পোজ দিয়েছে ফটোগ্রাফিতে । যাই হোক, দাদা কিছুদিন আগে আমি গেছিলাম তোমার এই ভ্রমণ করা সব জায়গা গুলোতে । তুমি অনেক ইনফর্মেশন আমাদের সাথে শেয়ার করেছ সেইগুলো সব আমার জানা ছিল না ।অনেক অনেক ধন্যবাদ দাদা এত সুন্দর সুন্দর ইনফর্মেশন আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য।
image.png

 last month 

কিছুদিন আগেই আমি শান্তিনিকেতন দিয়ে ঘুরে আসলাম দাদা। তবে কিঞ্চিত corona এর প্রকোপ এর কারণে অধিকাংশ জায়গা বন্ধ ছিল। এবং যোগাযোগ ব্যাবস্থার খুব বেহাল অবস্থা ছিল। তবে শান্তিনিকেতন খুব সুন্দর জায়গা। কোনো এক অজানা শক্তি যেন মন প্রাণ জুড়িয়ে দিয়ে যায়। তবে আমাদের টিনটিন বাবুকে দেখে মনে হচ্ছে ওনার গরম লাগছে। আমাদের পুতুল সোনা টিনটিন বাবুর এই ফটোটা বেশ সুন্দর হয়েছে। তবে বাবু যে নিচের দিকে এত মনোযোগ দিয়ে কি দেখছে এটা অজানা রয়ে গেল। টিনটিন বাবুর জন্য অফুরন্ত ভালোবাসা রইলো আমার তরফ থেকে।
image.png

This post has been upvoted by @italygame witness curation trail


If you like our work and want to support us, please consider to approve our witness




CLICK HERE 👇

Come and visit Italy Community



 last month 

ব্রাম্ম আলাদা ধর্ম আজকেই প্রথম শুনলাম। এখন খোঁজ করে দেখতে হবে এ ধর্মের প্রবর্তক কে।এ সম্পর্কে আরেকটু খোলাসা করে বললে আরো ভালো বুঝা যেত। ছবিগুলো সুন্দর করে তুললেন, পরিদর্শন করলেন, এনে আমাদের উপহার দিলেন ।তবে আপনার ডাব খাওয়া কখন শেষ হয় এটাই এখন দেখার বিষয়।

 last month 

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও সত্যজিৎ রায় হিন্দু ছিলেন না আজ প্রথম জানলাম দাদা।আমি জানতাম ব্রাহ্মনরা হিন্দু ধর্মের সব থেকে উপরের স্তরের।নজরুলের বিষয়টি জানতাম।যাইহোক এই মনোরম পরিবেশ সোনাঝুড়ির হাটে আমার ও যাওয়ার ইচ্ছা আছে একদিন।সুন্দর ছিল ফটোগ্রাফিগুলি দাদা,ধন্যবাদ আপনাকে।

 last month 

ব্রাম্মণরা তো হিন্দুই । কিন্তু, ব্রাম্মরা হিন্দু নয় । আলাদা ধর্ম । হিন্দু ধর্মের বৈদিক নীতি এবং একেশ্বরবাদে বিশ্বাসী এরা ।

 last month 

এবারে বুঝলাম দাদা।কত কিছুই অজানা আমাদের, আপনার মাধ্যমে নতুন কিছু জানতে পেরে খুবই ভালো লাগলো।ভালো থাকবেন দাদা।পরিবারের সকলের জন্য শুভকামনা ও ভালোবাসা রইলো।

 last month 

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও সত্যজিৎ রায় কে হিন্দু ধর্মাবলম্বী বলেই জানতাম এতোদিন। ব্রাহ্মধর্মের সম্বন্ধেও আজকে জানলাম। আর কাজী নজরুল ইসলাম এর স্ত্রী প্রমিলা দেবী কেও আমি হিন্দু বলেই জানতাম। অনেকগুলো নতুন তথ্য পেলাম আপনার এই পোস্টের মাধ্যমে।
মন্দিরে প্রবেশ করতে পারেনি শুধুমাত্র সাদা ড্রেসের জন্য এটা শুনে খুব খারাপ লাগলো। তবে সাদা ড্রেস পড়ে ঢোকার যুক্তিটা বুঝলাম না।
টিনটিন বাবুর ছবির স্টাইল গুলো কিন্তু দারুণ হয়েছে। বৌদিকেও অনেক মিষ্টি লাগছে। মালায় ক্ষীর দেখিয়ে তো লোভ ধরিয়ে দিলেন।
আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ দাদা অজানা তথ্যগুলো আমাদেরকে জানানোর জন্য এবং আপনার আনন্দের মুহূর্ত গুলো আমাদের সাথে ভাগাভাগি করে নেওয়ার জন্য। পরবর্তী পর্বের অপেক্ষায় রইলাম।

Thank You for sharing Your insights...

 last month 

জীবনস্মৃতি পড়ার সময় জেনে ছিলাম রবিঠাকুরের পৈতে হচ্ছে, পড়ে জেনেছি উনি ব্রাম্ম পথ নিয়েছেন।এই ব্যাপার গায়ে জাস্ট কাঁটা দেয়, মানুষের শিল্প সৃষ্টির পেছনে বহুকারণ লুকিয়ে থাকে, আমার ধারণা, এই পথ একটা বড় কারণ যে কবি গুরুর মত ভাবনা একেবারেই অন্যরকম।

টিনটিন বাবুর প্রথম ছবিটা খুবই কিউট ছিল। সব মিলিয়ে মিষ্টি একটা পরিবার। এভাবেই ভালো থেকো দাদা। ভালোবাসা ❤️

 last month 

দাদা ,আমি একবারে নতুন তত্ব জানতে পারলাম।রবীন্দ্রনাথ হিন্দুু ছিলে না।আমার এটা জানা ছিলে না।দাদা আপনার পোস্টর মধ্যে আমি একটি গুরুপ্ত পূর্ন তত্ব পেলাম।তাছাড়াও টিনটিন বাবু ঘুম পেয়েছে ,ছবির ক্যাপচার খুব সুন্দর হয়েছে।অনেক ধন্যবাদ ।

 last month 

হাহা। আমাদের দাদা সেই প্রথম পর্বে খাওয়া শুরু করেছিলো। এখনো খাওয়া চলছেই। হেহেহে। আহারে টিনটিন বাবুর খুবই গরম লাগছে যে সে পাঞ্জাবি খুলে ফেললো।

 last month 

রবীন্দ্রনাথ হিন্দু ছিলেন না এটা তো আগে জানতাম না দাদা। এতোদিন বইয়ে পড়ে আসলাম রবীন্দ্রনাথ সম্রান্ত্র ঠাকুর পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছিলেন 🙂। আর কাজী নজরুলের দ্বিতীয় স্ত্রী হিন্দর পরিবারের ছিল সেটাও অজানা ছিল। যায়হোক, রোদের মধ্যে ভালোই ঘুরাঘুরি করেছেন দেখছি। আমাদের গোলটু বাবুকে এতো না ঘুরাইলেও পারতেন। একদম টায়ার্ড হয়ে গেছে 😐।

 last month 

ক্ষীরটা দেখে লোভ লাগছে খুব।বেচারা টিনটিন এর অবস্থা সত্যিই দেখে খারাপ লাগছিলো।বেচারার কি একটা অবস্থা।

 last month 

দাদা সত্যিই আপনি রবীন্দ্রনাথের শান্তিনিকেতনের যে চমৎকার তথ্যগুলো দিলেন এগুলো অনেকগুলো তথ্যই আমার জানা ছিল না।আপনার পোষ্টের মাধ্যমে অনেক অজানা তথ্য জানতে পেরে অনেক বেশি ভালো লাগছে।
আদিবাসীদের গাঁয়ে তৈরী মালাই ক্ষীরের স্বাদটা কেমন ছিল আগামি পর্বে জানতে চাই।সব মিলিয়ে অসাধারণ হয়েছে আপনার আজকের পোস্টটি।বৌদি এবং প্রিয় টিনটিন বাবার জন্য অনেক অনেক ভালোবাসা ও শুভকামনা।♥♥

 last month 

দাদা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এবং রায় পরিবার দুজনই হিন্দু না হওয়া সত্বেও সকল ধর্মের মানুষের জন্য কাজ করে গেছে। সেদিনের সন্ধ্যায় আপনি যদিও প্রার্থনার জায়গায় প্রবেশ করতে পারেননি নিরাপত্তাজনিত কারণে। তার পরেও যে ফটোগ্রাফি গুলো আমাদের সামনে এনেছেন সেগুলো অসাধারণ হয়েছে। ধন্যবাদ আপনাকে দাদা।

 last month 

দাদা মালাইটা কি মজা ছিলো😉😉।যাই হোক ডাব যে বেশ মজা করে খেয়েছেন,তা বুঝা যাচ্ছে। যাই হোক যার যার ধর্ম তার তার কাছে,সবাই যে মানুষ এটাই বড় কথা।ধন্যবাদ

 last month 

আমার ভাই চেহারাটা একটু বড়সড় । ৪-৫ টে ডাব খেয়ে এমন মালাই আট-দশ ভাঁড় খেয়ে ফেললেও কিচ্ছু যায় আসে না ।

 last month 

চেহারাটা বড় হলে,আমার ফোনটা ছোট হয়েও আপনার চেহারাটা আটে যে।হা হা😉😉।আমার বাসায় আসিয়েন আপনারে এক হাড়ি মালাই খাওয়াবো।

Coin Marketplace

STEEM 0.22
TRX 0.06
JST 0.027
BTC 19786.40
ETH 1067.54
USDT 1.00
SBD 2.97