বিশ্বাস:একটা সম্পর্কের ভিত্তি।।২৬ নভেম্বর ২০২২

in আমার বাংলা ব্লগ2 months ago

হ্যালো বন্ধুরা,কেমন আছেন?আশা করি ভালো আছেন এবং সুস্থ আছেন।সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে আমি আমার পোস্ট লেখা শুরু করছি।আজকে আমি অনেকদিন পর জীবন সম্পর্কে আরো কিছু বলতে চলেছি।নিজের দৃষ্টিভঙ্গি আপনাদের সাথে শেয়ার করে নিতে চাই আর অবশ্যই আপনাদের গঠনমূলক মন্তব্য আশা করি।সময় গেলে আর সেই মূল্যবান সময়কে ফিরিয়ে আনা যায় না।

1000009548.jpg

pixabay.com থেকে ফটো নেওয়া হয়েছে

তাই সময়ের কাজ সময়ে করা উচিত।আমরা সবাই এই বিষয়টা বুঝি কিন্তু বুঝেও নিজেদের নিয়ন্ত্রণ করতে পারি না।আমি মনে করি কোনো মানুষ যদি নিজেকে ৭০% নিয়ন্ত্রণ করতে পারে তাহলে তার পক্ষে অসম্ভব বলে কিছু নেই।সাফল্য সেই মানুষের অনিবার্য।

সম্পর্কের ভিত্তি কি?

একটা সম্পর্কের সূত্রপাত ঘটে অনেক কারণে কিন্তু সেই সম্পর্ক মজবুত ও দীর্ঘ হয় একটা বিশ্বাসের উপর দাঁড়িয়ে।কিন্তু একজন মানুষ কে আরেক মানুষ কি পুরোপুরি বিশ্বাস করতে পারে?নাকি, কোনো ভুল বোঝাবুঝি বিশ্বাস কে ম্লান করে দেয়?

প্রিয় মানুষের প্রতি বেশি পসেসিভ কি সঠিক?

1000009549.jpg

pixabay.com থেকে ফটো নেওয়া হয়েছে

প্রিয় মানুষের প্রতি পসেসিভ থাকা কি সম্পর্কের জন্য নেতিবাচক?নাকি, এটা ভালোবাসাকে আরো বাড়িয়ে দেয়?এই বিষয়ে ব্যক্তি বিশেষে এই সম্পর্কে অভিমত আলাদা আলাদা হবে।মানুষ তার কাছের মানুষকে সব সময় একটা শক্ত বন্ধনে বেধে রাখতে চায়।প্রিয়জনকে হারানোর একটা ভয় সবসময় কাজ করে কিন্তু কখনোই অবিশ্বাস কাজ করে না।কিন্তু কোনো কারণে বিপরীত মানুষটি যদি এই মনোভাব কে নেতিবাচক ভাবে নেয় তাহলে একটা অবিশ্বাসের প্রশ্ন চলে আসে।মানুষটা মনে করে তার কাছের মানুষটা টাকে বিশ্বাস করে না তাই সব বিষয়ে অধিকার ও কৈফিয়ত দেখায়।

পসেসিভ থাকার ভালো ও মন্দ দুটো দিকই আছে।আমাদের উচিত ভালো দিক টা দেখা।কিন্তু সময় ও পরিস্থিতির কারণে মন্দ টা ও অনেক গুরুত্ব পেয়ে যায়।তাই একটা সম্পর্কের ভিত্তি মজবুত করতে বিশ্বাসকে কখনোই অবিশ্বাস এর পর্যায়ে নেওয়া উচিত না।

এই পৃথিবীতে কেউ চিরকাল থাকে না।সময় এলে সবারই চলে যেতে হয়।এটাই প্রকৃতির নিয়ম।আমাদের ইচ্ছা অনিচ্ছার কোনো মূল্য নেই এই অনিবার্য বাস্তবতার কাছে।তাই জীবনে যতটুকু বাঁচা যায় আনন্দ আর দুঃখকে সমান ভাবেই গ্রহণ করতে হবে।মানবিক বৈশিষ্ট্যের কারণে প্রভাব পড়বেই কিন্তু তাও আমাদের এগিয়ে যেতে হবে।এই পৃথিবীর সব মানুষ ভালো থাকুক,এটাই আমার কাম্য।


VOTE @bangla.witness as witness


witness_vote.png

OR

SET @rme as your proxy

witness_proxy_vote.png


Support @heroism Initiative by Delegating your Steem Power

250 SP500 SP1000 SP2000 SP5000 SP

Heroism_3rd.png


ধন্যবাদ।সবাই ভালো থাকবেন।

BoC- linet.png
-cover copy.png

|| Community Page | Discord Group ||


image.png

png_20211106_204814_0000.png

Beauty of Creativity. Beauty in your mind.
Take it out and let it go.
Creativity and Hard working. Discord

Sort:  

This post has been upvoted by @italygame witness curation trail


If you like our work and want to support us, please consider to approve our witness




CLICK HERE 👇

Come and visit Italy Community



 2 months ago 

ঠিক বলেছেন দাদা পৃথিবীতে মানুষ চিরদিন বেঁচে থাকে না।সময় ফুরিয়ে গেলে অবশ্যই চলে যেতে হবে। প্রত্যেক মানুষের ক্ষেত্রে দুইটা দিক অবশ্যই আছে সেটা হচ্ছে নেগেটিভ এবং পজেটিভ।কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে নেগেটিভ টা বেশি দেখা যায়।আবার কিছু কিছু ক্ষেত্রে পজিটিভ দিকটা বেশি দেখা যায়।তবে আমার মতে কোন মানুষ যদি একবার নেগেটিভলি কোন কিছু দেখায় তাহলে যেটা চিরদিনের জন্য একটা সন্দেহজনক অবস্থা হয়ে দাঁড়ায়।কিন্তু তাই বলে কি সম্পর্কের পতন ঘটবে? আমি সে কথা মোটেও মানি না।সময়ের জন্য অপেক্ষা করতে হবে এবং সময় সব বলে দিবে কে ভুল কে সঠিক।আমার বয়স তো এত বেশি না।এই অল্প বয়সে আমি যতটুকু বুঝেছি ধৈর্য হচ্ছে মহত্বের লক্ষণ।দাদা ধৈর্য ধরলে সব ফলাফল পাওয়া যায়।থাকনা পজিটিভ নেগেটিভ।একটু ছাড় দিলে তো সব চলে যাচ্ছে না জীবন থেকে।আমি এইটাই মনে করি।আমি মনে করি একটা সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য সরি বলাটা এত ছোট ব্যাপার না। কাউকে সরি বললে যে ছোট হয়ে যায় সেটা আমি মোটেও মানি না।ধন্যবাদ দাদা।

 2 months ago 

সত্যি দাদা অত্যন্ত অমূল্য একটি পোস্ট আপনি আজকে শেয়ার করলেন। মানবিক জীবনে বিশ্বাসের ভিত্তিটাই মূল। বিশ্বাস ছাড়া ঘরগুলোতে তো তাসের ঘর। এজন্য আমাদের প্রত্যেকের উচিত পজেসিভ এবং নেতিবাচক চিন্তা করা। তাতে করে আমাদের বিশ্বাসের জায়গাগুলো অত্যন্ত মজবুত হবে।

 2 months ago 

আমার কাছেও তাই মনে হয় যে একটি সম্পর্কের মজবুত স্তম্ভ হল বিশ্বাস। একে অপরের প্রতি বিশ্বাস থাকলে সম্পর্কে ফাটল ধরার সম্ভাবনা খুব কম থাকে। প্রিয় মানুষটির প্রতি অনেক বেশি প্রসেসিভ থাকলে তা হিতে বিপরীত হওয়া সম্ভবনা বেশি থাকে। প্রসেসিভনেসের একটা নির্দিষ্ট মাত্রা থাকা উচিত । তা না হলে মনে হবে যে তার প্রতি অবিশ্বাসের কারণে এত বেশি প্রসেসিভ। খুব সুন্দর লিখেছেন দাদা। আমাদের সকলেরই উচিত ভালো সম্পর্কগুলোর প্রতি আরো বেশি যত্নশীল হওয়া।

 2 months ago 

সত্যি বলতে একটা সম্পর্কের ভিত্তিই হলো বিশ্বাস। সেটা যদি না থাকে, সে সম্পর্কটা খুব তাড়াতাড়ি ঘুন ধরা কাঠের মত হয়ে যায়। যাতে একটু আঘাত পড়লেই, তা দুমড়ে মুচড়ে যায়।সমাজে একটা সুন্দর সম্পর্ককে নষ্ট করার জন্য অনেক অনুঘটক দেখতে পাওয়া যায়। তাদের কাজই হল একটা ভালো সম্পর্ককে খুব সহজেই ভেঙে দেওয়া। এতে তারা পৈশাচিক আনন্দ পায়। কিন্তু যদি একে অপরের প্রতি বিশ্বাস,ভরসা সবটাই প্রখর থাকে, আর একে অপরের কাছে যদি সম্পূর্ণভাবে খোলামেলা থাকা যায়,তবে আমার মনে হয় এই অনুঘটকদের খুব সহজেই এভয়েড করা যায়। পৃথিবীর প্রত্যেকটা সুন্দর সম্পর্ক যেন এই সব আগাছা অনুঘটকহীন ভাবেই ধীরে ধীরেই নিজেদের লক্ষ্যে পৌঁছে যায়। ভালো থাকুক সব ভালবাসার মানুষেরা।

 2 months ago 

তাই একটা সম্পর্কের ভিত্তি মজবুত করতে বিশ্বাসকে কখনোই অবিশ্বাস এর পর্যায়ে নেওয়া উচিত না।

যথার্থ বলেছেন ভাই। সম্পর্ক গুলো টিকে থাকুক, জীবিত থাকুক, সেখানে কোন কালো ছায়া না থাকুক, এমনটাই তো প্রত্যাশা ব্যক্ত করি।

 2 months ago 

হয়তো এটাই জীবন, হয়তো এটাই বাস্তবতা। তবে হ্যা, কিছু বিষয় থাকে চাইলেও সেটাকে পজিটিভলি গ্রহন করা যায় না কিন্তু তবুও সেখানে অবিশ্বাসকে জায়গা দেয়া হতে বিরত থাকা উচিত। সম্পর্কের মাঝে সর্বদা সেতু হিসেবে কাজ করে এই বিশ্বাস, যেটা হালকা হয়ে গেলে সম্পর্ক অটুট থাকা অসম্ভব হয়ে যায়। তবে সময়ের সাথে সাথে কেন জানি আমাদের বিশ্বাসটা ঠিক থাকে না, হয়তো আমাদের মানসিকতা দুর্বলতা এর জন্য দায়ী। ধন্যবাদ

Coin Marketplace

STEEM 0.20
TRX 0.06
JST 0.027
BTC 23126.57
ETH 1591.14
USDT 1.00
SBD 2.56