বাবার টাকা নিয়ে স্বপ্ন দেখা অনেক সহজ,, কিন্তু নিজে উপার্জন করে স্বপ্ন পূরণ করা অনেক কঠিন।

in Incredible India2 months ago

স্বপ্ন স্বপ্ন আমরা সবাই দেখি। কিন্তু আজ এই স্বপ্ন নিয়ে কিছু কথা বলব বলে আপনাদের মাঝে উপস্থিত হয়েছি আশা করব ভালো লাগবে আপনাদের কাছে আজকের এই পোস্ট। তাহলে বন্ধুরা চলুন জেনে নেওয়া যাক স্বপ্ন নিয়ে কিছু কথা।

স্বপ্ন ছেলে এবং মেয়ের দেখে কিন্তু মেয়েরা একটু পরিবারের কথা চিন্তা করে নিজের স্বপ্ন গুলো ভেঙে ফেলে। এবং ছেলেরা স্বপ্ন দেখে বাবার টাকার স্বপ্ন। আসলে বাবার টাকা বলতে যখন আমি নিজেও বাবার কাছ থেকে টাকা নিয়ে চলেছি তখন আমি অনেক স্বপ্ন দেখেছি। স্বপ্ন তো আমরা সবাই দেখি আমি ও ঠিক স্বপ্ন দেখেছি অনেক। কিন্তু যখন বাস্তব দুনিয়ার মাঝে এসে পড়েছি। তখন বুঝতে পেরেছি বাবার কাঁধে ভর দিয়ে স্বপ্ন দেখা যায় অনেক। কিন্তু সেই স্বপ্ন গুলো পূরণ করা অনেক কঠিন এক ব্যাপার।

1000033539.jpg

Pexels:

বাবার কাছ থেকে যখন টাকা নিয়ে চলতাম। তখন ভাবতাম বাবার টাকায় যদি সারা পৃথিবীটা কিনতে পারতাম তাহলে এই পৃথিবীটাই আমার হয়ে যেতো। কিন্তু সেই স্বপ্ন গুলো বয়সের সাথে ধীরে ধীরে চলে গিয়েছে। আমি জানি না কে কেমন। তবে আমার যতোটুকু মনে হয় প্রত্যেকটা ছেলে যখন বাবার কাছ থেকে টাকা নিয়ে চলেছে। এবং নিজে যতোদিন রোজগার না করতে পেরেছে ততদিন বাবার টাকায় স্বপ্ন দেখে এসেছে।

তখন মনে হয়েছে যদি বাবা একটি ভালো সাইকেল বা ভালো একটি বাইক কিনে দিতে পারতো তাহলে খুবই ধুম ধাম করে ঘুরে বেড়াতাম। ঘুরে বেড়াতে আমরা সবাই ভালোবাসি তার ওপরে বাবা তো খেতে দিচ্ছে বাবা তো পকেট মানি দিচ্ছে। তাহলে কেনো আমরা স্বপ্ন দেখতে পিছিয়ে থাকবো। কিন্তু একটি সময় এসে যায় যখন নিজে রোজগার করা শুরু করি। তখন বুঝতে পারি বাবা কতটা কষ্ট করে কিছু টাকা উপার্জন করেছে। শুধু আমাদের কে ভালো রাখার জন্য।

1000033542.jpg

Pexels:

আসলে নিজে যতদিন ইনকাম না করতে পারে বা যতদিন নিজের কাঁধে কোন দায়িত্ব আসে ততদিন আমরা ছেলেরা কিছুই বুঝতে পারি না। কারণ সংসারটি তো বাবা চালাচ্ছে বাবা বেঁচে থাকা একটি বট গাছের ছায়ার মতো। বট গাছ বহু বছর বয়স হয়ে গেলেও ছায়া কিন্তু সব সময় দিয়ে যায় আমাদের। ঠিক তেমনি বাবারও অনেক বছর বয়েস হয়ে গেলে ও মাথার ওপরে একটি ছায়া থাকে। যে ছায়া আমরা অনুভব করতে পারি যখন বাবা আমাদের মাঝে আর থাকে না।

নিজের কাছে যখন সংসারের দায়িত্ব আসে তখন বোঝা যায় বাবা কি কষ্ট করে এই সংসার চালিয়েছে, আজকে হঠাৎ করে এমন মনে হলো কিসের জন্য জানেন। ছোট থেকে বড় হয়েছি বাবার পাশে থেকে। এবং কখনো নিজের উপরে কোন দায়িত্ব আসেনি। বাবা খুবই সামান্য টাকা উপার্জন করতো কিন্তু আমরা একটি জিনিস বায়না ধরলে সেই জিনিস টি যখন বাবা পূরণ করতে পারতো না। তখন আমি নিজেও মায়ের সাথে রাগা রাগি করেছিলাম বাবা কেনো দিতে পারল না।

বাহ রাগের বসতে এমন কথাও বলেছিলাম কি করেছে বাবা কিন্তু আজ একটি মাস বড় ভাই আমাদের সংসার আমার কাঁধে ফেলে বাড়ি গিয়েছে। এখন বুঝতে পারছি মাস শেষে কি ভাবে নিজের সংসারে টাকা পাঠাবো। তাই হঠাৎ করে মনে হলো বাবা যখন আমাদের সংসার চালাতো তখন আমি কতো কি বায়না করেছি বাবা অনেক সময় দিতে পারিনি কি ভাবে পারত বাবা এতো কষ্ট করে আমাদের সংসার চালাতে।

1000033543.jpg

Pexels:

অধিকাংশ মানুষের আমি দেখেছি এবং নিজেও অনেক সময় বলেছি, তাই আজকে হঠাৎ করে এই কথা গুলো মনে পড়ে গেলো ,যেগুলো শেয়ার করতে মন চাইলো খুব আপনাদের মাঝে, আজকে আমি আমার বাবার ছাড়া অনেক বেশি টাকা উপার্জন করছি ।কিন্তু সংসারে ঠিক ভাবে টাকা দিতে পারব কি না সেই টেনশনে আছি। তাহলে বাবা কতোটা টেনশন করেছে বলুন এবং সে কতোটা কষ্ট নিয়ে আমাদের মুখে হাসি ফুটিয়েছে।

যাইহোক বন্ধুরা আজকে এখানে আমি শেষ করছি। এবং সব শেষে একটি কথাই বলতে চাই। বাবার টাকায় স্বপ্ন দেখা যায় অনেক। কিন্তু সেই স্বপ্নটি যখন নিজের টাকায় পূরণ করতে চাই। তখন আমরা বুঝতে পারি সেই স্বপ্ন পূরণ করা কতটা কঠিন এক ব্যাপার। তাই বলব একটি কথা অনেক সময় অনেক রাগা রাগি বাবার সাথে আমরা করে থাকি। এবং বাবা কে আমরা কখনো বলতে পারি না। বাবা আমি তোমাকে অনেক ভালোবাসি। যদি আপনার বাবা বেঁচে থাকে তাহলে বাবা কে একবার বলবেন বাবা আমি তোমাকে অনেক ভালোবাসি। দেখবেন বাবা এতো দিনে যে কষ্ট পেয়েছিল আমাদের কথায় সব কথা ইনশাল্লাহ ভুলে যাবে।

ধন্যবাদ সবাইকে ভালো থাকবেন

@baizid123

Sort:  

Thank you, friend!
I'm @steem.history, who is steem witness.
Thank you for witnessvoting for me.
image.png
please click it!
image.png
(Go to https://steemit.com/~witnesses and type fbslo at the bottom of the page)

The weight is reduced because of the lack of Voting Power. If you vote for me as a witness, you can get my little vote.

Upvoted! Thank you for supporting witness @jswit.

Loading...
 2 months ago 

ঠিক বলেছেন ভাইয়া বাবার টাকা দিয়ে আমরা অনেক বড় বড় স্বপ্ন দেখি মানুষ সে স্বপ্নগুলো পূরণ করতে পারে। যখন তারা নিজেদের চাকরি জীবনে শুরু করে তখন স্বপ্নগুলো ছোট হয়ে আসে এবং নিজের ইচ্ছা কে অপূর্ণতা রাখে।

আমি যখন চাকরি করতাম না তখন বাবার হাত থেকে টাকা নিয়ে আরো অনেক বড় বড় স্বপ্ন দেখতাম কোন হিসাব করতাম না। এখন হিসাব করে টাকা ভাঙি। ধন্যবাদ ভাই আপনার পোস্ট পড়ে আমার খুব খুব ভালো লাগলো এবং বাস্তবতা জীবনে সাথে মিলে গেল ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন

 last month 

একটু সময় ছিল বাবার কাছ থেকে আমরা সবাই টাকা নিয়েছি এবং নিজের মন মতো করে খরচ করেছে টাকাটা কিভাবে আসতো এটা আমরা দেখতাম না কিন্তু আমরা যখন উপার্জন করতে পারি তখন আমরা ঠিক বুঝতে পারি টাকা উপার্জন করতে কতটা কষ্ট এবং পরিশ্রম করতে হয়। বাবার টাকা নিয়ে স্বপ্ন না দেখে নিজের টাকা দিয়ে স্বপ্ন পূরণ করার ইচ্ছাটা নিজের মনে নিতে হবে। যাইহোক খুবই সুন্দর মন্তব্য শেয়ার করেছেন মন্তব্য পড়ে ভালো লাগলো ধন্যবাদ শুভকামনা রইল আপনার জন্য।

 2 months ago 

বাপের টাকার স্বপ্ন পূরণ করা সহজ হতে পারে, কিন্তু নিজের টাকাই স্বপ্ন পূরণ করা খুবই কঠিন আসলে এটাই বাস্তব আপনি যখন আপনার বাবার টাকায় স্বপ্ন পূরণ করবেন তখন যেটা ছিল সেটা করতে পারে, আর যখন নিজের টাকাই স্বপ্ন পূরণ করার চেষ্টা করবেন তখন ওটাই অনেক কষ্টের হয়ে যায়। আপনি এত সুন্দর একটি পোস্ট আমাদের মাঝে শেয়ার করেছেন এটা আমার কাছে অনেক ভালো লেগেছে।

 last month 

বাবার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দেখে অনেক মানুষ কিন্তু নিজে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান চালু করতে গেলে অনেক সময় লেগে যায় এবং সেই টাকা যদি নিজে পরিশ্রম করে ব্যবসার কাজে লাগাতে যায় তখন তো আরো বেশি সময় লেগে যায়। বাবার টাকায় স্বপ্ন দেখা আসলে আমাদের উচিত নয় নিজের এমন একটি পরিচয় করতে হবে নিজেকে এমন জায়গায় নিয়ে যেতে হবে যেখানে বাবার টাকার কোন কথা হবে না শুধু নিজের পরিশ্রমের কথা হবে। ধন্যবাদ আপনাকে সুন্দর মন্তব্য শেয়ার করার জন্য।

 last month 

ধন্যবাদ আপনাকে ভাইয়া

 2 months ago 

আপনার আজকের পোস্টের টাইটেলটা খুব পছন্দ হয়েছে। আপনি ঠিকই বলেছেন বাবার টাকায় বিলাসি জীবন পার কারাটা খুব সহজ তবে নিজে টাকা রোজগার করাটা খুব কঠিন। টাকা খরচ করাটা যতটা সহজ ঠিক ততটাই কঠিন সেটা ইনকাম করা। তবে নিজে ইনকাম করে কোনো সপ্ন পূরন করতে পারলে সেটার অনুভূতি একটু আলাদা হয়ে থাকে। ভালো লাগলো আপনার পোস্টটি পড়ে। ভালো থাকবেন।

 last month 

আমার কষ্টের টাইটেল আপনার কাছে ভালো লেগেছে তাই সর্বপ্রথম জানাই আপনাকে ধন্যবাদ। আসলে বাবার টাকা আছে কি নেই সেটা বড় কথা না। বড় কথা আমরা এই জিনিসটা ভাবি না বাবা কিভাবে উপার্জন করছে এবং বাবা টাকা কোথা থেকে নিয়ে আসছে। আমরা উপার্জন করে যখন তখন কিন্তু বুঝতে পারে এই টাকাটা উপার্জন করতে আমাদের কতটা কষ্ট হয়েছে। ঠিক একটা সময় আমাদের বাবাকেও কষ্ট করতে হয়েছে সংসারের জন্য টাকা উপার্জন করে নিজের পরিবারের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য। তাই নিজেদের একটু ভেবেচিন্তে চলতে হবে এবং বাবার টাকায় চলাফেরা করার চেয়ে নিজে উপার্জন করে ভালোভাবে চলা অনেক ভালো বলে আমার মনে হয়।

 last month 

নিজে টাকা ইনকাম না করলে টাকা রোজগারের কষ্টটা বোঝা যায় না। বাবার কি আছে না আছে সেটা ভেবে কোনো লাভ নেই। বাবার টাকায় ফুটানি দিয়ে ক্ষনিকের শান্তি পাওয়া গেলেও সারাজীবনের সুখ পাওয়া যায় না। যখন সংসারের দায়িত্ব বাবার কাঁধে থাকে তখন দায়িত্ব পালনলর কষ্টটা অনুভবও করতে পারি না। তবে যখন সব দায়িত্ব আমাদের উপর পড়ে তখন সেটা হাড়ে হাড়ে টের পাওয়া যায়। ধন্যবাদ আপনাকে আমার মতামতের উওর দেওয়ার জন্য। ভালো থাকবেন।

 last month 

বাস্তব জীবনে বাবার টাকা নিয়ে স্বপ্ন পূরণ করাটা অনেক সোজা তবে একই জীবনে নিজে ইনকাম করে নিজেরে কাটায় স্বপ্ন পূরণ করাটা অনেকটাই কঠিন বাস্তবের মুখে আসলে বোঝা যাই দুনিয়াটা কতটা কঠিন। অনেক সময় টাকা থাকলে হয় সেই চাহিদা থাকে না চাহিদা থাকলেও টাকা অপচয় করতে ভালো লাগেনা। আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ নিজের মনের কথা লেখার মাধ্যমে প্রকাশ করার জন্য।

 last month 

আমরা যখন উপার্জন করি তখন টাকা খরচ করতে গেলে আমরা ভেবে চিন্তা করি কিন্তু যখন বাবার কাছ থেকে টাকা নিয়ে আমরা খরচ করে তখন একবারও ভাবি না বাবা টাকাটা কিভাবে উপার্জন করেছে এবং আমরা আমাদের বাবার টাকা নিয়ে স্বপ্ন দেখেছি অনেক কিন্তু সেই স্বপ্নগুলো এখন নিজেদের টাকায় পূরণ করা অনেক কঠিন এক ব্যাপার। ধন্যবাদ আপনাকে সুন্দর মন্তব্য উপহার দেওয়ার জন্য।

 last month 

একদম সত্যি তাই, নিজের কষ্ট করা অর্থ খরচ করতে হলে অনেক চিন্তা ভাবনা করেই আমাদের খরচ করতে হয় অথচ বাপের টাকা খরচ করতে কোন রকম চিন্তা লাগেনা ‌ভাই আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ আপনার মূল্যবান সময় দিয়ে আমার কমেন্টই পড়ে খুব সুন্দর একটি রিপ্লে করার জন্য।

 last month 

আপনি একটি চরম সত্য এবং বাস্তববাদী বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন।আসলে ভাই শুধু আপনি না।আপনার মতো আমিও সব সময় চিন্তা করি যে কবে বাবার টাকা নেওয়া থেকে নিজেকে মুক্ত করবো।সেই ছোট থেকে একটা মানুষকে কতোই আর টাকার চাপ দিই।বাবার টাকা দিয়ে অনেক স্বপ্ন দেখা যায় কিন্তু নিজে উপার্জন করে সখ পুরন করা অনেক কঠিন

 last month 

বাবা ছোট থেকে আমাদের আবদার পূরণ করেছে আমরা যখন নিজে উপার্জন করতে পারি আমার স্বপ্ন মাটি করে হলেও বাবার স্বপ্ন পূরণ করার চেষ্টা করতে হবে বলে আমার মনে হয় তাহলে বাবা-মায়ের মনে আনন্দ আসবে। বাবাকে ছোট্টবেলা থেকে আমরা পরিশ্রম করতে দেখেছি এবং বাবা কিছু টাকা জমিয়েছে আমাদের জন্য কিন্তু আমরা সেই টাকা নিয়ে বিলাসিতা জীবন পালন করতে গিয়ে নষ্ট করি আসলে এগুলো আমাদের ঠিক নয় বলে আমার মনে হয়।

 last month 

আসলে আমরা প্রত্যেককে স্বপ্ন দেখতে অনেক পছন্দ করি। একটা কথা আছে না, স্বপ্ন দেখতে টাকা লাগে না। তাই সবার মনে অনেক স্বপ্ন থাকে। কিন্তু অনেকেই বাবার উপার্জিত টাকায় স্বপ্ন পূরণ করার চিন্তা করে। হয়তো বাবার টাকা দিয়ে স্বপ্ন খুব তাড়াতাড়ি পূরণ করা সম্ভব হয়। কিন্তু নিজের উপার্জিত টাকা দিয়ে কখনো চাইলেও এভাবে স্বপ্ন পূরণ করা হয় না।

সত্যিই আপনার পোস্টের আজকের টাইটেলটা দেখেই একদম মন ভরে গেছে। ভালো থাকবেন

 last month 

আপনি জীবনে সফলতা পেয়েছেন আপনি পরিশ্রম করে সফলতা অর্জন করুন মানুষ আপনাকে সম্মান দেবে ভালোবাসবে বাবার টাকা নিয়ে স্বপ্ন পূরণ করতে সবাই পারে নিজের উপার্জন করে কয়জন তার স্বপ্ন পূরণ করতে পারে। নিজে পরিশ্রম করুন নিজে উপার্জন করুন তারপরে সফলতা অর্জন করার চিন্তা করুন দেখবেন একদিন ঠিক সফলতা পাবেন।

চমৎকার মন্তব্য শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ ভালো এবং সুস্থ থাকবেন।

 last month 

আমাদের সমাজে অনেক মানুষ আছে তারা বাবার টাকায় অহংকার করে। কিন্তু তারা সমাজে গায়ের জোরে চলাচল করলেও ভিতরে ভিতরে মানুষ তাদেরকে পছন্দ করেন না। জীবনে সৎ পথে উপার্জন করে নিজের পায়ে দাঁড়াতে হবে তবেই না জীবন স্বার্থক। তাই বাবার কি আছে এটা না ভেবে নিজের পায়ে দাঁড়ানোর জন্য প্রত্যেককেই পরিশ্রম করতে হবে।

আমার কমেন্টের রিপ্লাই দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ। ভালো থাকবেন।

 last month 

অধিকাংশ ছেলেরা নিজেদের স্বপ্ন পূরণ করার জন্য বাবার টাকা ব্যবহার করে। কিন্তু যখন নিজের কাজে সে স্বপ্নগুলো পূরণ করার দায়িত্ব আসে। তখন বুঝতে পারে সে স্বপ্নগুলো পূরণ করাটা কতটা কঠিন। আমার কাছে মনে হয় আমাদের প্রত্যেকটা স্বপ্ন নিজ দায়িত্বে পূরণ করা উচিত। দিন শেষে তাহলেই আমরা বুঝতে পারবো আমাদের বাবা কত কষ্ট করে টাকা উপার্জন করে। ধন্যবাদ উপরোক্ত বিষয় নিয়ে আলোচনা করার জন্য। ভালো থাকবেন।

Coin Marketplace

STEEM 0.20
TRX 0.13
JST 0.029
BTC 67831.26
ETH 3460.55
USDT 1.00
SBD 2.72