ফটোগ্রাফি:"স্মৃতির পাতা থেকে জাদুঘরে সংরক্ষিত আগের দিনের রূপার তৈরি কিছু অলংকার"

in আমার বাংলা ব্লগ2 months ago

বন্ধুরা
আপনারা সবাই কেমন আছেন? আশা করি আপনারা সবাই ভালো আছেন। আজ অনেক দিনের পুরনো কিছু ফটোগ্রাফি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। আজ আমার বাবু আমার ফোনে অনেক পুরনো দিনের ছবি দেখছিলো। আসলে বাবু কখনও নিজের ছাড়া অন্য কার ও ফোনে হাত দেয় না। ওর নিজের একটা ভিডিও দেখার জন্য ফোন আছে। সেই ফোন ওর নিজেরই। কিন্তু আজ হটাৎ করে আমার ফোন নিয়ে পুরনো কিছু ফটোগ্রাফি দেখছিলো তখন দেখি জাদুঘরের কিছু ছবি দেখছে আর আমার কাছে জানতে চাইছে ও গুলো কিসের ছবি। ঠিক তখনই দেখি রূপার তৈরি বিভিন্ন ধরনের অলংকার দেখছে খুবই কৌতুহল নিয়ে। হটাৎ আমি এটা লক্ষ্য করলাম। তখন আমি ও দেখি অনেক সুন্দর কিছু পুরনো দিনের অলংকার। এখন এত রূপার তৈরি অলংকার দেখি কিন্তু সেই আগের দিনের কোন ডিজাইন দেখতে পাই না। তাই ভাবলাম আপনাদের সাথে শেয়ার করি । আমার মত আপনাদের ও ভালো লাগতে পারে। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

IMG_20211221_155841.jpg
রূপার তৈরি ফুলের ঝাড়।

IMG_20211221_155740.jpg
রূপার তৈরি মেয়েদের চুলার কাটা

IMG_20211221_155749.jpg
রূপার তৈরি তালের হাত পাখা

IMG_20211221_155758.jpg
রূপার তৈরি মেয়েদের সাজার কুমকুম দানি

IMG_20211221_155801.jpg
রূপার তৈরি চুলার বেনুনির কাটা

IMG_20211221_155805.jpg
রূপার তৈরি গলার হার কানের দুল

IMG_20211221_155816.jpg

IMG_20211221_155835.jpg

IMG_20211221_155901.jpg
রূপার তৈরি ঝুমকো ও গলার হার

Sort:  
 2 months ago 

আপু আপনি অনেক সুন্দর সুন্দর ফটোগ্রাফি করেছেন। আপনার ফটোগ্রাফি থেকে চোখ ফেরানো যাচ্ছে না।

 2 months ago 

আগের দিনের তৈরি রুপার জিনিসপত্র গুলো দেখতে অনেক সুন্দর লাগছে। বিশেষ করে রুপার তৈরি কানের দুল, গলার হার, ঝুমকো ইত্যাদি অলংকার জাতীয় জিনিসগুলো দেখে মুগ্ধ হয়ে গেলাম। ভাবতে বাধ্য হলাম যে অতীতকালের মানুষেরাও কত সৌখিন ছিল। অসাধারণ একটি পোস্ট আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

 2 months ago 

টিনটিন বাবুর সুবাদে পুরনো স্মৃতি বিজড়িত জাদুঘরের বিভিন্ন অলংকারের ছবিগুলো যেটা আমাদের সাথে শেয়ার করেননি। আজকে শেয়ার করলেন যেটা দেখে খুবই ভালো লাগলো দিদি।

 2 months ago 

কি চমৎকার দেখতে এক একটা কাজ 👌। অসম্ভব ভালো লাগলো দেখে। মেয়েদের যে চুলের কাটা দেখলাম এটা কি মাথায় ব্যবহারের জন্য? নাকি এমনি বানিয়ে রাখা! আসলে এমন ভারি জিনিস মাথায় পরে কি ঘোরা সম্ভব তাই! তাই মনে কৌতুহল হলো একটু।

 2 months ago 

আগের দিনে রূপকথার জিনিসগুলো খুবই সুন্দরভাবে ফটোগ্রাফির মাধ্যমে আমাদের দেখার সুযোগ করে দিলেন। আসলে আপনি খুবই সুন্দর ফটোগ্রাফি করেছেন। এই ফটোগ্রাফি দেখে খুব ভালো লাগলো।

 2 months ago 

খুব সুন্দর ভাবে ফটোগুলি তুলে ধরেছেন। আমিও ইন্ডিয়ান মিউজিয়াম গেছিলাম ।কিন্তু সত্যি কথা বলতে এই অলংকার গুলো ভালোভাবে দেখার সময় হয়ে ওঠেনি। এমনিতেও মেয়েদের অলংকার বিষয়ে খুব একটা কিছু বুঝিনা। তবে আজকে আপনার পোস্টে ফটো গুলো দেখে ভালো লাগলো।

 2 months ago 

দিদি মনি বাবুর জন্য আজকে আমরাও সেই পুরোনো দিনের রূপার তৈরি অলংকার দেখতে পেলাম, এর জন্য বাবুকে অসংখ্য ধন্যবাদ, দিদি মনি আপনাকে রূপার ফটোগ্রাফি অনেক সুন্দর ছিলো, পুরনো জিনিসপত্র দেখে খুবই ভালো লাগলো, এতো সুন্দর কিছু ফটোগ্রাফি শেয়ার করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ দিদি মনি।

 2 months ago 

বিভিন্ন নতুন নতুন জিনিসের সাথে পরিচিত হলাম। যেমন কুমকুম দানি এবং চুলার বেনুনির কাটা, ও চুলার কাটা রুপোর তৈরি হলেও কালারটা যেন ভিন্ন ধরনের। যাই হোক ধন্যবাদ আপু সুন্দর সুন্দর ফটোগ্রাফি গুলো শেয়ার করার জন্য। বলা যায় যে গোলটুবাবুর জন্যই এই ফটোগ্রাফি গুলো দেখা 🙂।

 2 months ago 

রুপার এই কারুকার্য করা জিনিসগুলো সত্যি চমৎকার। আমি আগে কখনো দেখিনি। আসলে এখন এইরকম কোনো সৌখিন মানুষ নেই যে স্বর্ণ রোপ‍্য নিয়ে এই কারুকার্যগুলো করবে। যাইহোক দারুণ ছিল কিন্তু বৌদি ফটোগ্রাফি গুলো। ধন্যবাদ আপনাকে।।

 2 months ago 

জাদুঘরে সংরক্ষিত রুপার কিছু অলংকারের ফটোগ্রাফি দেখে আমার খুবই ভালো লাগছে। আজকে আপনার মাধ্যমে রুপার অলংকারগুলো দেখতে পারলাম। না হলে তো দেখাই হতো না। এত সুন্দরভাবে ঐতিহ্যবাহী এবং খুব পুরাতন রুপার অলংকারগুলো আমাদেরকে দেখার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি বৌদি।

 2 months ago 

আগে রুপোর তৈরি জিনিসপত্র অনেক ব্যবহৃত হতো। বর্তমানে রুপার তৈরি জিনিসপত্র একেবারেই ব্যবহার উঠে গেছে। রুপার তৈরি ঝুমকা গহনা দেখে অনেক ভালো লাগলো। এত সুন্দর একটি পোস্ট আমাদের মাঝে শেয়ারের জন্য আপনার প্রতি অনেক অভিনন্দন।

 2 months ago 

ছবিগুলো খুবই সুন্দর তুলেছেন দিদি। জাদুঘরে সংরক্ষিত রুপার তৈরি এই অলংকার গুলো যেন দূরের এক ইতিহাসের নিয়ে যায়।

 2 months ago 

লাস্ট ছবিতে রুপোর ঝুমকো আর গলার হার খুবই পছন্দ হয়েছে। মনে হচ্ছে ব্ল্যাক পলিশের জুয়েলারি গুলোর মত। মেয়েদের এসব দেখতে বেশ মজা লাগে, আমারও লাগলো।ভালো থেকো বৌদি।

 2 months ago 

দিদি নতুন কিছু শেয়ার করেছেন আমাদের মাঝে ৷ রুপার তৈরি এসব সুন্দর সুন্দর জিনিস বর্তমানে ইতিহাস কেবল ৷টিনটিন বাবুর জন্যই আমরা পুরো দিনের নতুন কিছু দেখতে পেলাম ৷অসাধারণ একটি পোস্ট আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য আপনাকে এবং বাবুকে অসংখ্য ধন্যবাদ দিদি।

 2 months ago 

রূপার তৈরি অলংকারগুলি খুবই সুন্দর ও আকর্ষণীয় দেখতে।পুরোনো দিনের এইসব সুন্দর কারুকার্য দেখে খুবই ভালো লাগলো, তাছাড়া আমার কাছে বেশি ভালো লেগেছে রুপার তৈরি গলার হার।টিনটিন বাবুর কৌতূহল দেখে খুব ভালো লাগলো, ধন্যবাদ বৌদি।

Coin Marketplace

STEEM 0.22
TRX 0.06
JST 0.025
BTC 19452.79
ETH 1328.88
USDT 1.00
SBD 2.48