ঋষি বাল্মীকির চিত্রাঙ্কন ।। অরিজিনাল আর্টওয়ার্ক

in আমার বাংলা ব্লগlast month
হ্যালো বন্ধুরা, সবাই কেমন আছেন? আশা করি সবাই ভালো আছেন। সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে আজকের ব্লগটি শুরু করছি।

আজকে আমি একটা নতুন অঙ্কন নিয়ে এসেছি আপনাদের সামনে। আজকে সকালেই অঙ্কনটি করলাম। আজকে যে অঙ্কনটি আমি করেছি সেটি হলো ঋষি বাল্মীকির চিত্র। কালকে রাতে আমি একটি ধর্মীয় সিরিজ দেখছিলাম আর তাতে ঋষি বাল্মীকিও ছিল। তো আমি সকালে অঙ্কন করতে বসে কি অঙ্কন করা যায় আজকে সেইটা ভাবছিলাম এবং তখন মনে আসলো কোনো ঋষির ছবি অঙ্কন করা যায় তাহলে কেমন হয়। তখন ভাবলাম কালকে যে সিরিজটি দেখলাম সেখানে তো ঋষি বাল্মীকি ছিলেন তাহলে তার চিত্র আঁকার চেষ্টা করি। ব্যাস তখন নিয়ে বসে পড়লাম দেখি কতদূর কি করা যায়। তো আমার অঙ্কনটি শেষ করতে বেশি সময় লাগেনি, মোটামুটি ঘন্টাখানিকের মধ্যে ধরে শেষ করে ফেলেছিলাম। যাইহোক ঋষি বাল্মীকির চিত্রটা কাগজে ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছি, আশা করি আপনাদের কাছে আজকের অঙ্কনটি ভালো লাগবে।


❆উপকরণ:❆

আর্ট পেপার
বোর্ড
স্কেচ পেন্সিল
কালার পেন্সিল
পেন
রাবার
এখন অঙ্কনের ধাপগুলো নিচের দিকে তুলে ধরবো---

➤প্রথম ধাপে ঋষি বাল্মীকির মুখমন্ডল পুরোপুরি ভাবে অঙ্কন করে নিয়েছিলাম। এরপর চোখ, নাক, মুখ সব অঙ্কন করে নিয়েছিলাম। মাথায় চুল অঙ্কন করে দিয়েছিলাম এবং পরে লম্বা দাঁড়ি অঙ্কন করে দিয়েছিলাম।

➤দ্বিতীয় ধাপে বডি অঙ্কন করে দিয়েছিলাম। এরপরে বডিতে একপাশে কিছু পোশাকের মতো ডিসাইন করে দিয়েছিলাম এবং একটা হাত অঙ্কন করে দিয়েছিলাম। হাতে একটি দোয়াত কলমের মতো দেখতে অঙ্কন করে দিয়েছিলাম।

➤তৃতীয় ধাপে অন্য পাশে আরেকটি হাত অঙ্কন করে নিয়েছিলাম। এরপর পা অঙ্কন করে দিয়েছিলাম এবং হাঁটুর উপরে একটি খাতার মতো অঙ্কন করে দিয়েছিলাম যেখানে কিছু লিখছে।

➤চতুর্থ ধাপে প্রথম থেকে পেন্সিল দিয়ে অঙ্কন করা সমস্ত বিষয়গুলোকে পেনের কালী দিয়ে আরো স্পষ্ট ভাবে ফুটিয়ে তুলেছিলাম।

➤পঞ্চম ধাপে চুল এবং দাঁড়িতে সাদা, কালো হালকা করে কালার দিয়ে দিয়েছিলাম। এরপর তার সম্পূর্ণ মুখমণ্ডলে কালার দিয়ে দিয়েছিলাম।

➤ষষ্ঠ ধাপে সম্পূর্ণ বডিতে কালার দিয়ে দিয়েছিলাম।

➤সপ্তম ধাপে বডিতে অঙ্কন করা পোশাকে কালার দিয়ে দিয়েছিলাম এবং সাথে খাতার পিছনেও হালকা করে কালার দিয়ে দিয়েছিলাম।

➤অষ্টম ধাপে পায়ের দিকে পোশাকে কালার দিয়ে দিয়েছিলাম এবং পরে হাতে আর দোয়াত কলমের মাথার দিকে কালার করে দিয়েছিলাম।

➤নবম ধাপে ঋষির চারিপাশ দিয়ে রসনি মতো বোঝাতে হালকা করে অঙ্কন করে দিয়েছিলাম।

আর্ট বাই, @winkles

শুভেচ্ছান্তে, @winkles


Support @heroism Initiative by Delegating your Steem Power

250 SP500 SP1000 SP2000 SP5000 SP

Heroism_3rd.png

Sort:  
 last month 

ভাইয়া আমি তো দেখে একদম অবাক হয়ে গেলাম কিভাবে পারেন আপনি এত সুন্দর করে চিত্র গুলো ফুটিয়ে তুলতে তাও আবার ঘন্টাখানিকের মধ্যে। আমার হলে তো তিন-চার ঘণ্টা লেগে যেতো। এত সুন্দর করে চিত্রটি অঙ্কন করেছেন যে বোঝাই যাচ্ছে না এটি হাতে আর্ট করা। মনে হচ্ছে ঋষি বাল্মীকির একটা পোস্টার। সত্যি ভাইয়া মুগ্ধ করার মতো আর্ট। আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ ভাইয়া এত সুন্দর সুন্দর আর্ট গুলো আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য।

 last month 

তখন ভাবলাম কালকে যে সিরিজটি দেখলাম সেখানে তো ঋষি বাল্মীকি ছিলেন তাহলে তার চিত্র আঁকার চেষ্টা করি।

ঋষি বাল্মীকির চিত্রাঙ্কন অসাধারণ হয়েছে দাদা। আপনার প্রতিভা দেখে মুগ্ধ হয়ে যাই। আপনি একটি সিরিজ দেখে এই চিত্রটি অঙ্কন করেছেন জেনে অনেক ভালো লাগলো। আপনার প্রতিভা যতই দেখি ততই মুগ্ধ হয়ে যাই। আপনি একজন দক্ষ চিত্রশিল্পী এতে কোন সন্দেহ নেই। আপনি আপনার হাতের জাদুতে এই দারুন চিত্রটি অঙ্কন করে সকলের মাঝে উপস্থাপন করেছেন এজন্য আপনাকে জানাচ্ছি ধন্যবাদ। শুভকামনা ও ভালোবাসা রইলো দাদা। ❤️❤️❤️

 last month 

কালকে রাতে আমি একটি ধর্মীয় সিরিজ দেখছিলাম আর তাতে ঋষি বাল্মীকিও ছিল।

বাহ,সিরিজ দেখে চিত্র অঙ্কন দারুণ হয়েছে কিন্তু দাদা।তাছাড়া ঋষি বাল্মীকির চারিপাশে পেনসিল অঙ্কনটির সঙ্গে সঙ্গে আপনার কালার কম্বিনেশন দুর্দান্ত।👌আমার কাছে চিত্রটি অনেক ভালো লেগেছে।ঋষি বাল্মীকি ছিলেন দস্যু রত্নাকর যার পাপের ভার সংসারে কেউ নেয়নি।এমনকি পাপে পুকুরের জল পর্যন্ত শুকিয়ে গিয়েছিল এবং রাম জপ মুখে আসছিল না।শেষমেশ মরা মরা জপ করেই তিনি উদ্ধার পান।সংস্কৃত ভাষার আদিকবি তিনি এবং রামায়ণ ও রচনা করেন।আপনি অসাধারণ করে তার চিত্রটি ফুটিয়ে তুলেছেন, ধন্যবাদ দাদা।

 last month 

আমি কিছুতেই ভেবে পাইনা যে মানুষ এত সুন্দর চিত্র কিভাবে আঁকে। আপনি রাতের বেলা ধর্মীয় একটি সিরিজ দেখলেন আর ঘন্টা খানেক এর ভিতর এত সুন্দর একটি চিত্র অঙ্কন করে ফেললেন সত্যি দারুন এঁকেছেন দাদা ।আমি তো এরকম কিছু আঁকতে গেলে ঘন্টাখানেক কেন দু তিন ঘন্টার উপরে বসে আঁকার পড়ে শেষ পর্যন্ত আর মিলাতে পারিনা। দেখে মনেই হচ্ছে না যে এটি আর্ট করা মনে হচ্ছে আপনি ঋষি বাল্মীকির একটি ছবি টাঙ্গিয়ে রেখেছেন সত্যি আমি মুগ্ধ হয়ে গেলাম আপনার ছবিটি দেখে।

 last month 

ঋষি বাল্মীকির চিত্রাঙ্কন অসম্ভব সুন্দর হয়েছে দাদা ।সত্যিই অনেক দক্ষতার সম্পূর্ণ চিত্র অঙ্কন করে দেখালেন। যেটা দেখে সত্যিই মুগ্ধ হয়েছি। এত সুন্দর করে প্রত্যেকটি ধাপ সম্পন্ন করেছেন যা আরও সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি করেছে।

 last month 

মহাঋষি বাল্মীকি মুনি ছিলেন একজন দস্যু তার নাম ছিল দস্যু রত্মাকর। তিনি ডাকাত থেকে মহাঋষি বাল্মীকি মুনি হয়েছেন। আদি কবি হিসেবে তিনি শ্রেষ্ট। তিনিই তো রামায়ন রচনা করেছেন। এমন একজন মহাঋষির চিত্রাংকন করা সত্যি কঠিন যেটা আপনি করে দেখালেন। সত্যি বলতে দাদা আপনার কাজের ভিন্নতা আমাকে মুগ্ধ করে। আমার খুবি ভাল লাগে আপনার ক্রিয়েটিভিটি দেখে। আপনার অংকিত ছবি গুলো গুছিয়ে রাখবেন যাতে করে পরবর্তী প্রজন্ম দেখতে পায়। ভাল থাকবেন দাদা। ধন্যবাদ।

 last month 

দাদা আপনি নিখুঁত চিত্র অঙ্কন করেন আমি জানি, কারণ এর আগে আপনার অনেকগুলো চিত্র অংকন দেখেছিলাম। ঠিক তেমনি আজকেও ঋষি কুমারের চিত্র অংকন টি বেশ দারুন হয়েছে। মনে হচ্ছে যেন সত্তিকারের ঋষি কুমার বসে রয়েছে। আপনার চিত্রাংকন গুলো আমাকে খুব ভাবায়, যদি এমন চিত্র অঙ্কন করতে পারতাম। আমাদের সাথে এত সুন্দর চিত্র অংকন শেয়ার করার জন্য আপনার প্রতি রইল ভালোবাসা অবিরাম দাদা।

 last month 

ঋষি বাল্মীকির চিত্রাঙ্কন একদম অরজিনাল হয়েছে। আসলে দাদা আপনার চিত্র অঙ্কনের দক্ষতা প্রশংসা না করে পারা যায় না। আপনি খুবই দক্ষতা দিয়ে চিত্র অংকন করেন এবং চিত্র অংকন গুলো একদম অরজিনাল হয়। দেখে মনে হয় ডিজিটাল অংকন। সত্যিই আপনার দক্ষতা দেখে আমি মুগ্ধ হয়ে যায়। এত সুন্দর ভাবে আজকে এই চিত্রটি অঙ্কন করেছেন আমার কাছে অনেক ভালো লেগেছে। একদম অরজিনাল চিত্র ফুটিয়ে তুলেছেন। খুবই ভালো লাগলো এই চিত্রটি আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ দাদা।

 last month 

এক ঘন্টায় এত নিখুঁতভাবে ছবি অঙ্কন শেষ করা যায়? খুব অবাক হলাম। আপনি তাহলে আর্টে ভালো পারদর্শী বোঝা যাচ্ছে। ঋষি বাল্মীকির গায়ের কালার দেখে বোঝার উপায় নেই যে ছবিটা কালার পেন্সিল দিয়ে আঁকা। তাছাড়া চাদরের ভাঁজ, চুল দাঁড়ি প্রতিটি অংশ অসাধারণ হয়েছে এক কথায়। একদম প্রফেশনাল আর্টিস্টদের মত হয়েছে আর্টটি। যত প্রশংসা করা হবে ততই কম হবে।

 last month 

ঋষি বাল্মীকির চিত্রটা দেখে সত্যি দাদা চোখ জুড়িয়ে গেছে। আপনার এই কাজটি দেখে বোঝা যাচ্ছে এটি অনেক ধৈর্য্য এবং পরিশ্রমের একটি কাজ আমি তেমন একটা ভালো করে চিত্রঙ্কন করতে পারি না তবে আমি জানি এটা করা কতখানি ধৈর্যের কাজ 🙂। ঋষির বডি এবং পোশাকে রং ব্যবহার করার জন্য এটি দেখতে অনেক বেশি ইউনিক দেখাচ্ছেন এবং প্রোফেসনাল মনে হচ্ছে। দাদা আপনার এত সুন্দর ক্রিয়েটিভিটি দেখে সত্যিই আমি মুগ্ধ হয়েছি 🥰🥰 অনেকদিন পর একটি প্রাণ উদ্বুদ্ধ করার মত পোস্ট উপভোগ করলাম এটি দেখে আমারও ঋষির চিত্র অঙ্কন করতে খুব মন চাচ্ছে আমি যেহেতু এটি ভালো করতে পারি না তাই একটি ডিজিটাল আর্ট করার চেষ্টা করব । আশা করি কিছুটা হলেও ফুটিয়ে তুলতে পারব।☺️☺️, আপনার প্রতি ভালোবাসা রইল দাদা এমন সুন্দর একটি সৃজনশীল পোস্ট আমাদেরকে উপহার দেওয়ার জন্য। 🥳💗

 last month 
দাদা আপনি সব সময়ই দেখি হঠাৎ হঠাৎ যে অভিজ্ঞতা অর্জন করেন তা কোন না কোনভাবে আমাদের সাথে শেয়ার করার চেষ্টা করেন। এইটা দাদা আসলেই আমাদের জন্য অনেক শিক্ষণীয় বিষয়।
আজকে আপনি যে ঋষি বাল্মিকীর ছবিটা এঁকে আমাদের সামনে নিয়ে আসলেন সেটাও গতকাল রাতে দেখা সিরিজের দেখা একটি চরিত্র।
নিত্যদিনে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আপনি আমাদের সামনে আসেন এটা আমার খুবই ভালো লাগে। আপনার থেকে আমিও অনুপ্রাণিত হচ্ছি কিভাবে নিজের ব্লগিং এ একটা ছাচ আনা যায়।
ছবিটার অঙ্কন বেশ সুন্দর এবং এর উপস্থাপনাও দারুণ।
ধন্যবাদ দাদা আপনাকে।
 last month 

ঋষি বাল্লিকের চিত্র অংকটি দেখে সত্যি আমি মুগ্ধ হয়ে গেছি।ঋষি বাল্লিকের দাড়ির চিত্র অংকনটুকু আমার কাছে সবচাইতে বেশি ভালো হয়ে গেছে।

 last month 
দাদা আপনি এতো সুন্দর করে ঋষি বাল্মীকির চিত্রাঙ্কন ।। অরিজিনাল আর্টওয়ার্ক করেছেন যা দেখে সত্যিই আমি আশ্চর্য হয়ে গেছি এত সুন্দর করে আপনি কিভাবে চিত্রাংকন করেন তাই ভাবছি সত্যিই অনেক সুন্দর করে আপনি এই চিত্র কোনটি করেছেন যা আমি বারবার দেখেছি। সবচেয়ে বেশি ভাল লেগেছে নবম ধাপে ঋষির চারিপাশ দিয়ে রসনি মতো বোঝাতে হালকা করে অঙ্কন করে দিয়েছিলেন সেই দৃশ্যটি।
এত চমৎকার একটি অংকন আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি সেই সাথে দোয়া ও ভালোবাসা অবিরাম♥♥

Coin Marketplace

STEEM 0.26
TRX 0.07
JST 0.033
BTC 24144.59
ETH 1782.89
USDT 1.00
SBD 3.27