বাগানের জন্য প্রস্তুতি পর্বঃ এক , 10% beneficiary to @shy-fox

in আমার বাংলা ব্লগ6 months ago (edited)

আসসালামুআলাইকুম,

বন্ধুরা সবাই কেমন আছেন? আশা করি ভালোই আছেন, আমিও আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছি। ইংল্যান্ডে এখন সামার সিজন চলছে, তাই পুরোদমে সবাই ব্যস্ত হয়ে পড়েছে তাদের বাগান পরিচর্যার কাজে, আমরাও এর ব্যতিক্রম নই। আপনারা ইতিমধ্যে অনেকেই জেনে গিয়েছেন আমরা বাগান করতে ভালোবাসি এবং আমাদের একটি বাগান রয়েছে যেখানে নানা প্রকারের ফলমূল, সবজি এবং ফুলের চাষাবাদ করে থাকি।শীতের সিজনে মোটেও বাগানে যাওয়া হয়না। প্রচন্ড ঠান্ডার কারণে বাগান পরিচর্যা করা হয় না এ সময়ে। বাগান পরিচর্যার প্রথম ধাপ হলো ঘাস কাটা,এরপর আগাছা পরিষ্কার করা।এরপর চারা রোপন।

FF6A08DA-F8EB-41B5-8C5B-F98DF64F8768.jpeg

8F9C011F-4AC3-480B-BD1A-FD595A459F97.jpeg

993861EC-5BB2-474D-93F7-2A7F7DA12357.jpeg

ঘাস কাটার কাজ চলছে।

78A3A390-A8B4-4DC0-B492-A285B2BF1C7B.jpeg

বাগানের মধ্যে বড় একটি গাছ রয়েছে, এই গাছে এক প্রকারের তুলার মত ফুল হয় যা চারিদিকে ছিঁটে পড়ে বাগান কে নষ্ট করে দেয়। তাই এই গাছের বড় ডালগুলো কাটা হচ্ছে।

শীতের সিজনে অনেকদিন ঘাস না কাটার ফলে গাছগুলো অনেক লম্বা হয়ে যায়, তাই এই ঘাসগুলো কাটতে অনেক কষ্ট হয়, পরে আবার কাটতে তেমন কোনো অসুবিধা হয় না ।প্রতিবছর আমি আর আমার হাজব্যান্ড মিলে বাগানের ঘাসগুলো কেটে থাকি, কিন্তু এবছর আমার হাসবেন্ড কয়েক দিন একটু অসুস্থ থাকায় লোক দিয়ে ঘাসগুলো কেটে নিয়েছি। নাইজেরিয়ান দুজন লোক নিয়েছিলাম এই ঘাস কাটার কাজে। দুপুর একটা থেকে সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত একদিনে কাজ করেছিল,এ জন্য তাদের মূল্য দিতে হয়েছিল ৬০ পাউন্ড। বাংলাদেশী টাকার ৬০০০ এর উপরে। এদেশে সকলেই নিজেদের বাগান নিজেরাই পরিষ্কার করে, এদেশের মানুষগুলো খুবই পরিশ্রমী।

88E625CC-2866-4304-909B-336CA44F616F.jpeg

কিছু ফুলের চারাও কিনে এনেছি বাগানের জন্য। গতবছর যতগুলো ফুলের গাছ ছিল সবগুলোই মরে গিয়েছে প্রচন্ড ঠান্ডায়। এগুলো বছরে একবারই হয়, আর এখন শুধু গোলাপ গাছ গুলো রয়েছে।গত বছর প্রায় ৮/৯ প্রকারের ফুলের গাছ ছিল আমার বাগানে।এবারও আরো কিছু ফুলের গাছ কালেকশন করবো।

বাগানে এখন ফলের মধ্যে রয়েছে আপেল, পিয়ার, আঙ্গুর, ফিগ, পিচ, অরেঞ্জ।এছাড়া বাংলাদেশ থেকে এনেছিলাম পিয়ারা ও লেবু গাছ। পিয়ারা ও লেবু গাছ এখনো বাগানে নেওয়া হয়নি, কিছুদিনের মধ্যেই নিয়ে যাব বাগানে।ফল গাছগুলোর বিশেষ কোন যত্ন নিতে হয়না, শীতের সিজনে গাছগুলো দেখে মনে হয় মৃত, কিন্তু সামারের সময় মৃত গাছগুলো জেগে উঠে পাতা ও ফুল দিয়ে যা দেখতে ভারি সুন্দর লাগে।

এখন আসছি সবজি নিয়ে। প্রতিবছর নানা ধরনের সবজি লাগিয়ে থাকি আমার বাগানে, যার মধ্যে থাকে লাল শাক, ডাটা শাক, লাই শাক, পুঁই শাক থাকে।এই শাকগুলোর বিচি সরাসরি বাগানে ছিটিয়ে চারা বানিয়ে ফেলি। আর সবজি যেগুলো রয়েছে সেগুলো ঘরে চারা করে তারপর বাগানে রোপন করি। পরবর্তী পর্বে চারা রোপণের পদ্ধতি গুলো আপনাদেরকে দেখাবো।

বন্ধুরা আজ তাহলে এতোটুকুই, পরবর্তীতে শেষ পর্ব নিয়ে হাজির হব আপনাদের মাঝে।

Photographer@tangera
DeviceI phone 13 Pro Max

বন্ধুরা এটিই ছিল আমার আজকের আয়োজন। আশা করি আপনাদের ভালো লেগেছে।

পরবর্তীতে নতুন কিছু নিয়ে হাজির হব আপনাদের মাঝে।

ধন্যবাদ,

@tangera

1927F0BC-A81B-459C-A2F6-B603E4B2106C.png


👉 আমাদের discord চ্যানেল এ JOIN করুন :

👉 আমাদের discord চ্যানেল এ JOIN করুন :
Sort:  
 6 months ago 

পুরো পোষ্ট টা পড়ে যেটা বুঝলাম , শীতের সময় বরফের জন্য বাগানের একটা দুর্বিষহ পরিস্থিতি হয় যেহেতু বাগান পরিচর্যা করা হয়না।যাইহোক আবার সুন্দর করে বাগান সাজিয়ে ফেলুন। বাগান টা বেশ বড় আর সুন্দর। ভালো লাগবে দেখতে, আর সব ঠিক হয়ে গেলে অবশ্যই আবার বাগান নিয়ে পোষ্ট দেখার অনুরোধ রাখলাম।ভালো থাকুন

 6 months ago 

ওয়াও আপু অসাধারণ, আপু আপনার সম্পূর্ণ পোস্টটা পড়ে বুঝতে পারলাম বাগান পরিচর্যা বিষয় নিয়ে আপনি কাজ করে যাচ্ছেন, ছোটবেলা থেকে আমার বাগান করার শখ রয়েছে, বাগান করা এমন একটি শখ যা মানুষের আত্মতৃপ্তি বৃদ্ধি করে। শুভেচ্ছা ও শুভকামনা রইল আপনার জন্য।

 6 months ago 

ওয়াও,বাগান করলে ভালোই লাগবে।ফল এবং ফুলের চারা লাগালে দেখতেও সুন্দর লাগবে আবার ফল ধরলে ফল ও খাওয়া যাবে।ভালো ছিলো।আপু ধন্যবাদ আপনাকে। শুভেচ্ছা রইল।

 6 months ago 

ঠিক বলেছেন আপু, আমি প্রতিবছরই এগুলো করে থাকি যা খুবই উপভোগ করি, ধন্যবাদ আপনাকে।

 6 months ago (edited)

ওয়াও আপু,আমার ও বাগান করার খুব শখ, তবে বাসার সামনে জায়গা নেই বললেই চলে।কয়েকদিন আগে কিছু গাছ কিনে এনেছিলাম।তার মাঝে একটা ক্যাপসিকাম গাছ ও ছিলো।আমার বারান্দাতেই টব দিয়ে লাগিয়েছি,তবে কেনো জানিনা মরে যাচ্ছে গাছটা।কারণ আমি পারদর্শী নই।

 6 months ago 

আপু করতে থাকো, ধিরে ধিরে তুমিও শিখে যাবে।

 6 months ago 

ওয়াও আপু বাগান করা আমার একটি শখ। আপনার বাগান করা দেখে আমার সেই শখের কথা মনে পরল ।আপনি খুব সুন্দর ভাবে বাগানের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন আপনি যে জায়গায় বাগান করছেন পরিবেশটা এত সুন্দর এত মনোরম যা দেখে ভালো লাগছে।আপেল, পিয়ার, আঙ্গুর, ফিগ, পিচ, অরেঞ্জ অনেক ফল দেখি আপনার বাগানে। এছাড়াও আরো কিছু লাগাবেন সেগুলোর অপেক্ষায় থাকলাম। ধন্যবাদ আপু আপনার বাগানের ফটোগ্রাফি ও প্রস্তুতি গ্রহণ মূলক পোস্ট আমাদের কাছে শেয়ার করার জন্য।

 6 months ago 

অনেক ধন্যবাদ আপু আপনার সুন্দর মন্তব্যের জন্য।

 6 months ago 

বাগানের পূর্বপ্রস্তুতি দেখে খুবই ভালো লাগলো আপু। আপনার বাগানের ছবিগুলো এর আগেও দেখেছি। খুব সুন্দর লাগে দেখতে। এত সুন্দরভাবে ফলগুলো গাছে ধরে থাকে যে দেখতেই ভালো লাগে। এবারও আপনার বাগানের ফুল ফলের ছবি দেখার অপেক্ষায় রইলাম। শুভকামনা রইল আপনার এবং আপনার বাগানের জন্য।

 6 months ago 

অবশ্যই দেখতে পাবে, অনেক ধন্যবাদ তোমাকে।

 6 months ago 

আপু আপনার এই পোস্ট পড়ে খুবই ভালো লাগলো। আপনার বাগান করার শখ, তার পাশাপাশি আপনি বাগানে এত কিছু করতেছেন তা জেনে অনেক ভালো লাগতেছে ।আপনার পরবর্তী পোষ্টের অপেক্ষায় থাকবো কিভাবে আপনি চারা রোপন করবেন তা দেখার অপেক্ষায়। খুব ভালো লাগলো, ভালো থাকবেন আপু ।অনেক শুভেচ্ছা রইল।

 6 months ago 

আপু খুব শীঘ্রই দেখতে পাবেন, অনেক ধন্যবাদ আপনাকে।

 6 months ago 

বাগান করতে আমারও খুবই ভালো লাগে। বাগান করলে মানসিক প্রশান্তি আসে। অবসর সময়ে বাগান করতে আমার অনেক ভালো লাগে। আপু আপনি নতুনভাবে আপনার বাগান সাজানোর জন্য অনেক সুন্দর করে প্রস্তুতি নিচ্ছেন দেখে অনেক ভালো লাগলো। আশা করছি আপনার এই বাগান ফুলে ফলে ভরে উঠবে। শুভকামনা রইল আপনার জন্য।

 6 months ago 

অনেক ধন্যবাদ আপনার সুন্দর মন্তব্যের জন্য।

 6 months ago 

বাগান তৈরীর জন্য প্রস্তুতিপর্ব অনেক ভাল ছিল আপু। অনেক ভাল একটি উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন যেটার মাধ্যমে পরিবেশের সৌন্দর্য তা বৃদ্ধি করবে। আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ আপু।

 6 months ago 

আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ।

 6 months ago 

আপনার কার্যক্রম দেখে খুবই ভালো লাগলো। বাগান আমার অনেক ভালো লাগে। বিশেষ করে অবসর সময়ে বাগানে বসে থাকতেও খুবই ভালো লাগে। অনেকের শখই থাকে একটা সুন্দর বাগান করা। আমার ও ইচ্ছা আছে বাগানের। অনেক ধন্যবাদ আপনাকে আপু।

 6 months ago 

আসলে বাগান করলে অনেক মানসিক প্রশান্তি পাওয়া যায়,ধন্যবাদ আপনাকে।

নিজের বাগানের সবকিছুই অনেক ভালো লাগে। কষ্ট করে বাগান করলে আর যদি বাগানে সাফল্য পাওয়া যায় তাহলে সে আনন্দ ধরে রাখার মত। প্রতিবছর আপনি অনেক ধরনের সবজি রোপন করে এটা দেখে সত্যিই অনেক ভালো লাগলো। আপনাকে অনেক ধন্যবাদ আপু আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য। আর অপেক্ষায় রইলাম পরবর্তী পার্ট দেখার জন্য।

 6 months ago 

খুব শীঘ্রই দেখতে পাবেন ভাইয়া, অনেক ধন্যবাদ আপনাকে।

 6 months ago 

আপনার বাগান করার ব্লগটি দেখে নিজেকে অনেক উৎসাহ মনে করতেছি। আসলে আমরা চাইলে অল্প কিছু জমির মধ্যে অনেক রকমে চাষ করতে পারি, যা প্রাকৃতি পরিবেশকে ঠিক রাখবে এবং নিজেরা স্বাস্থ্যকর এবং পুষ্টিকর খাবার পাবো। আপনার চিন্তাধারা অনেক সুন্দর ,যা কিনা আপনি বিদেশের মাটিতে বসে অনেক দেশীয় সবজি , ফল ইত্যাদি জন্য বাগান করতেছেন বলে আমি আনন্দিত অনুভব করতেছি। শুভকামনা রইল আপনার বাগান করার জন্য। আর হ্যা আপনার বাগানের পরবর্তী পর্ব নিয়ে আবশ্যই আমাদের মাঝে আসবেন, অপেক্ষায় রইলাম

 6 months ago 

অনেক ধন্যবাদ আপনার সুন্দর মন্তব্যের জন্য।

 6 months ago 

ওমান থাকা কালীন বেশ চমৎকার চমৎকার বাগান দেখতে পেয়েছি, যেটি বাড়ির আঙিনায়। আর আপনার পোস্টের মাধ্যমে দেখতে পাচ্ছি প্রস্তুত প্রণালী। অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে বাগান প্রস্তুত প্রণালি আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য। ভালো হবে ধন্যবাদ

 6 months ago 

আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ।

 6 months ago 

আপনার বাগান করার প্রস্তুতি দেখে খুবই ভালো লাগছে আপু।আসলে এভাবে বাগান করা আমার শক।খুবই ভালো লাগে আমার এই বাগান করতে কিন্তু আমার পরিস্থিতি নেই সেজন্য করতে পারছিনা।

 6 months ago 

দোয়া করি আপনিও যেন এ ধরনের একটি বাগান করতে পারেন, ধন্যবাদ।

Coin Marketplace

STEEM 0.22
TRX 0.06
JST 0.025
BTC 19175.84
ETH 1292.84
USDT 1.00
SBD 2.42