ঈদ উপলক্ষে লাগানো সুন্দর একটি মেহেদির ডিজাইন।

in আমার বাংলা ব্লগ3 months ago

💕 হ্যালো বন্ধুরা 💕

"আসসালামু আলাইকুম" সবাই কেমন আছেন? নিশ্চয় আল্লাহর অশেষ রহমতে সবাই খুব ভালো এবং সুস্থ আছেন। আমিও আল্লাহর রহমতে ভালোই আছি।

আজকে আমি ঈদ উপলক্ষে।একটি মেহেদীর ডিজাইন শেয়ার করলাম। আসলে আগে আমি খুব মেহেদী দিতে পছন্দ করতাম কিন্তু কেন জানি এখন আর মেহেদী আমার হাতে লাগাতে ভালো লাগেনা। কিন্তু অন্য সবার হাতে মেহেদি লাগিয়ে দিতে খুব ভালো লাগে। এবার ঈদে অনেকের হাতে মেহেদি লাগিয়ে দিয়েছি কারণ মেহেদি লাগাতে আমার খুবই ভালো লাগে। আমার মেয়ে আবার মেহেদি লাগাতে খুব পছন্দ করে। তাই প্রায় সময় ওর হাতে মেহেদি লাগিয়ে দিতে হয়। ঈদের আগের দিন রাত্রে বলল ওর হাতে মেহেদি লাগিয়ে দিতে। আর আমার হাতে ও সময় ছিল তাই ওর হাতে মেহেদি লাগিয়ে দিলাম। ওর দুই হাতের উপরে নিচে সব জায়গায় মেহেদী লাগিয়ে দিলাম। আর সেই মেহেদির একটি ডিজাইনটাই আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম। আশা করি মেহেদির ডিজাইন আপনাদের কাছে ভালো লাগবে। আমার দেওয়া সুন্দর মেহেদির ডিজাইনের সবগুলো ধাপ আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম।


তাহলে চলুন শুরু করা যাক

20240411_032443.jpg

ধাপ - ১

  • প্রথমে আমি হাতের নিচের অংশে দাগ দিয়ে কিছু ডিজাইন করে নিলাম। তারপর আমি এর উপর আরো কিছু সুন্দর ডিজাইন করে নিলাম।।

1713534434469.jpg

ধাপ - ২

  • এরপর আমি বকা কিছু দাগ দিয়ে দিলাম। তারপর আমি দাগগুলোর ভিতরে কিছু ফুল এঁকে নিলাম।

1713534657992.jpg

ধাপ - ৩

  • তারপর আমি ডিজাইনটির অন্যপাশে আরো কিছু সুন্দর ডিজাইন করে নিলাম।

1713534697955.jpg

ধাপ - ৪

  • তারপর ডিজাইনগুলোর উপর আমি আরো কিছু ফুল একে আরো সুন্দর সুন্দর ডিজাইন করে নিলাম।

1713534769889.jpg

ধাপ - ৫

  • এরপর আমি এর উপর বড় একটি ফুল একে নিলাম। তারপর আমি সবগুলো আঙ্গুলের সুন্দর সুন্দর কিছু ডিজাইন করে নিলাম।

1713534911962.jpg

শেষ ধাপ

  • এরপর মেহেদির ডিজাইন এর সুন্দর কিছু ছবি তুলে নিলাম।

20240411_032443.jpg

20240411_032457.jpg

আশা করি আমার আজকের ঈদ উপলক্ষে লাগানো সিম্পল মেহেদির ডিজাইনটি আপনাদের কাছে ভালো লেগেছে। আর যদি কোন ভুল হয়ে থাকে তাহলে সবাই ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন। সবাই ভালো এবং সুস্থ থাকবেন।

শুভেচ্ছান্তে : @sshifa

💕 আমার পোস্টটি দেখা এবং পড়ার জন্য সবাইকে অনেক ধন্যবাদ 💕

IMG_20220215_193615.png


আমার নাম মোতাহারা বেগম শিফা। আমি একজন বাংলাদেশী নাগরিক। বাংলা আমার অহংকার এবং বাংলা ভাষা আমার মাতৃভাষা বলে আমি নিজেকে অনেক গর্বিত মনে করি। আমি আমার জন্মভূমিকে অনেক অনেক ভালোবাসি। আমি বাংলাদেশের গাজীপুর জেলায় বাস করি। আমি বিবাহিতা আমার দুটো সন্তান আছে। বাংলাকে ভালোবাসি বলে "আমার বাংলা ব্লগে" কাজ করতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত। আমি ছবি আঁকতে, গান গাইতে, রান্না করতে এবং বিভিন্ন রকম ডাই তৈরি করতে খুবই পছন্দ করি। আমার আবার বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়াতে এবং প্রকৃতির সৌন্দর্যের ফটোগ্রাফি করতেও খুবই ভালো লাগে। আমি ভবিষ্যতে এই প্লাটফর্মে ভালো কাজের মাধ্যমে অনেক দূর এগিয়ে যেতে চাই এটাই আমার লক্ষ্য।

Sort:  
 3 months ago 

,আপু আপনি প্রায় সময় আপনার মেয়ের হাতে মেহেদি লাগিয়ে দেন।আর মেহেদির ডিজাইন গুলো দেখতে ভীষণ সুন্দর হয়।ঈদ উপলক্ষে মেয়ের হাতে মেহেদি ডিজাইনটি খুবই সুন্দর লাগছে দেখতে।আমার ও মেহেদি হাতে পরতে ভীষণ লাগে।এই ঈদে দিয়েছি।কিন্তু সব সময় সময় হয় না দেয়ার।তাই দিতে পারিনা।আর আপনার মেহেদি লাগাতে ইচ্ছে করেনা। কিন্তু অনেকের হাতে মেহেদি পরিয়ে দিতে ভালো লাগে।তবে তো ভালোই।ধন্যবাদ আপু চমৎকার এই ডিজাইনটি শেয়ার করার জন্য।

Thank you, friend!
I'm @steem.history, who is steem witness.
Thank you for witnessvoting for me.
image.png
please click it!
image.png
(Go to https://steemit.com/~witnesses and type fbslo at the bottom of the page)

The weight is reduced because of the lack of Voting Power. If you vote for me as a witness, you can get my little vote.

 3 months ago 

ঈদ উপলক্ষে হাতে খুবই সুন্দর মেহেদী ডিজাইন করেছেন। আসলে মেহেদি ডিজাইন গুলো দেখতে অনেক ভালো লাগে। আপনি খুবই সুন্দর এবং দক্ষতার সাথে এই ডিজাইনটি করেছেন। দেখতে পেয়ে অনেক ভালো লাগলো।

 3 months ago 

ঈদ উপলক্ষে আমরা সবাই হাতে মেহেদী দিতে খুব পছন্দ করি। ঈদে হাতে মেহেদি পড়তে এক অন্যরকম অনুভূতি লাগে। আজ আপনার মেহেদি ডিজাইনটি কিন্তু খুব সুন্দর করে দিয়েছেন। আমিও সবসময় মেহেদী পছন্দ করতাম অনেক। যদিও আপনার মত অতটা সুন্দর করে দিতে পারি না। তারপরও চেষ্টা করতাম নিজের হাতে সবসময় মেহেদী দিয়ে রাখার জন্য। আজ আবার আপনার মেহেদি ডিজাইন টি দেখে অনেক লোভ লেগে গেল। দেখেই বুঝা যাচ্ছে আপনি খুব মেহেদী দিতে পারদর্শী।

 3 months ago 

দূর আপু আগে বললে তো আর টাকা খরচ করে হাতে মেহেদী পরতাম না। আপনিতো দেখছি দারুন সুন্দর করে মেহেদেী পড়াতে পারেন। তবে অন্য কে মেহেদী লাগিয়ে দেওয়ার আনন্দটাই একদম অন্য রকমের। আপনার করা আজকের মেহেদী ডিজাইনটি সত্যিই দারুন ছিল।

 3 months ago 

আমি তো ভেবেছিলাম এই সমস্যা শুধু আমার একার। এখন দেখছি সবারই। মেহেদি লাগাতে এখন আর তেমন একটা ভালো লাগে না। আগে একসময় মেহেদী ছাড়া চলতোই না। আপনারতো মেয়ে আছে এজন্য মাঝে মাঝে মেহেদি দিয়ে দিতে পারেন। আমার তো তাও হয় না। যাই হোক আপনার আজকের মেহেদির ডিজাইনটি কিন্তু খুব সুন্দর হয়েছে। এই মেহেদিগুলো দিয়ে মেহেদি দিলে দেখতেও খুব ভালো লাগে।

 3 months ago 

ঈদ উপলক্ষে সবাই মেহেদী পড়তে অনেক ভালোবাসে। আপনার মেহেদী ডিজাইন দারুণ হয়েছে। আসলে আপু মেহেদী পড়াতে অনেক ধৈর্যের প্রয়োজন হয়। আর বাচ্চারা দু'হাতে এভাবে মেহেদী পড়তে অনেক পছন্দ করে। ধন্যবাদ আপু সুন্দর ডিজাইন আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য।

 3 months ago 

ঈদ উপলক্ষে আপনার মেয়ের হাতে খুব সুন্দর করে মেহেদি ডিজাইন আঁকিয়ে দিয়েছেন আপু। ডিজাইনটি আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে। আপনার অন্যদের হাতে মেহেদি ডিজাইন করতে ভালো লাগে জেনে বেশ খুশি হলাম। আমার তো খুব আলসেমি লাগে। অনেক ধন্যবাদ মেহেদি ডিজাইন টি আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য।

 3 months ago 

মেহেদি ডিজাইন গুলো আমার কাছে খুবই ভালো লাগে।
আপনিও খুবই সুন্দর একটি মেহেদি ডিজাইন প্রস্তুত করে আমাদের মাঝে উপস্থাপন করেছেন।
দেখে খুবই ভালো লাগলো ।
বিশেষ করে আপনার বুদ্ধির মাধ্যমে সুন্দর ডিজাইনটি করেছেন ।
ডিজাইনটি অসাধারণভাবে ফুটেছে।
বিশেষ করে ছোট ছোট নকশা গুলোর কারণে আরো বেশি ভালো লাগছে দেখতে।

 3 months ago 

ঈদ উপলক্ষে তো দেখছি আপনি আপনার মেয়ের হাতে অনেক সুন্দর করে মেহেদি লাগিয়ে দিয়েছেন। মেহেদির ডিজাইন টা অনেক বেশি সুন্দর হয়েছে আর দেখতেও খুব ভালো লাগতেছে। এরকম ভাবে মেহেদি আঁকলে দেখতে অনেক ভালো লাগে। আপনি প্রায় সময় আপনার মেয়ের হাতে মেহেদি লাগিয়ে দেন, এটা তো আপনার পোস্ট গুলো দেখলেই বুঝতে পারি। আপনার মেয়েও খুব ভালোবাসে মেহেদী দিতে নিশ্চয়ই। এই ডিজাইন টা তার হাতে খুব ভালো মানিয়েছে। ধোয়ার পরেও নিশ্চয়ই কালারটা সুন্দর এসেছিল, আর দেখতেও ভালো লেগেছিল।

Coin Marketplace

STEEM 0.19
TRX 0.14
JST 0.030
BTC 62784.34
ETH 3337.95
USDT 1.00
SBD 2.47