নারিকেল চিংড়ি রেসিপি।

in আমার বাংলা ব্লগlast month

1657026708120.png


আসসালামু আলাইকুম।

আজ আমি আপনাদের মাঝে আরো একটা সুন্দর রেসিপি নিয়ে হাজির হলাম। যেটা আমার খুবই পছন্দের একটা রেসিপি।আজ আমি আপনাদের সাথে যে রেসিপিটা শেয়ার করবো সেটা হলো নারিকেল চিংড়ি।মানে পানির পরিবর্তে নারিকেলের দুধ দিয়ে চিংড়ি মাছের ভুনা। অনেকেই এভাবে নারিকেলে দুধ দিয়ে চিংড়ি মাছ রান্না করে খেয়েছে আবার অনেকে খায়নি। আর যারা খায়নি তারা অবশ্যই আমার এই সুন্দর রেসিপি ফলো করে একবার হলেও বাসায় ট্রাই করবেন।

এটা মূলত নদীর চিংড়ি মাছ।মাছ গুলো মাঝারি সাইজের। নদীর চিংড়ি মাছ এমনিতেই অনেক মজা।আর সেই চিংড়ি মাছ গুলো যদি রান্না হয় নারিকেলের দুধ দিয়ে তাহলে তো কথাই নেই, স্বাদ আরো দ্বিগুণ হারে বৃদ্ধি পাবে।আর কোনো কথা নয়, এখন রেসিপিটা শুরু করি।

উপকরণ সমূহ :
১.চিংড়ি মাছ

IMG20220701115405.jpg

২.নারিকেলের দুধ

IMG20220701113413.jpg

৩.শুকনা মরিচ বাটা
৪.পেঁয়াজ বাটা
৫.রসুন বাটা
৬.জিরা বাটা

IMG20220701113439.jpg

৭.লবণ
৮.হলুদ
৯.ধনিয়ার গুড়া
১০.গরম মশলা

IMG20220701114149.jpg

১১.সরিষার তেল

প্রস্ততপ্রাণালী:

প্রথম স্টেপে একটি নারিকেল কুরানি দিয়ে খুব আস্তে আস্তে এবং সাবধানে নারিকেল কুরিয়ে নিতে হবে।

IMG20220701111818.jpg

তারপর নারিকেলের ভিতর সামান্য পানি মিক্সড করে ভালো করে চটকে নারিকেলের দুধ বের করে নিতে হবে।

IMG20220701112023.jpg

এরপর একটা ছাকনির সাহায্যে ছেঁকে নিতে হবে। যাতে ফ্রেশ নারিকেলের দুধ পাওয়া যায়।

IMG20220701112257.jpg

বাকি যে নারিকেলের ছাবা গুলা থাকে এগুলা আপনারা অন্যান্য কাজেও ব্যবহার করতে পারেন।

IMG20220701113356.jpg

এখন একটা কড়াই গরম করে কড়াইয়ে সরিষার তেল দিয়ে দিতে হবে। তেলের মধ্যে তেজপাতা,লবঙ্গ,দারুচিনি ফোড়ন দিতে হবে।

IMG20220701115454.jpg

তারপর বাটা মশলা(শুকনো মরিচ,পেঁয়াজ, রসুন এবং জিরা বাটা) এবং গুড়া মশলা ( লবণ,হলুদ এবং ধনিয়ার গুঁড়া) দিয়ে ভালো ভাবে কষাতে হবে।

IMG20220701115633.jpg

মশলা গুলা যাতে পুড়ে না যায় তাই অল্প অল্প নারিকেলের দুধ দিয়ে মশলা গুলো খুব সুন্দর করে কষাতে হবে। আর একটা কথা আমি এই চিংড়ি মাছ রান্নাতে কোনো পানি ব্যবহার করবো না। পানির পরিবর্তে নারিকেলের দুধ ব্যবহার করবো।

IMG20220701115725.jpg

মশলাগুলো কষানো শেষ হলে তার মধ্যে ধুয়ে রাখা চিংড়ি মাছ দিয়ে আরেকটু নেড়ে চেড়ে কষাতে হবে।

IMG20220701120030.jpg

এরপর নারিকেলের দুধ পুরাটায় দিয়ে দিতে হবে।

IMG20220701120715.jpg

IMG20220701121219.jpg

এরপর কিছুক্ষণ জাল করার পর যখন গা মাখা মাখা হয়ে আসবে তখন গরম মশলার গুড়ো দিয়ে নামিয়ে নিলেই রেডি হয়ে যাবে নারিকেল চিংড়ি।

IMG20220701121845.jpg

নারিকেল চিংড়ি এমন সুস্বাদু খাবার যা একবার খেলে বার বার খেতে মন চাইবে। আপনারা বাড়িতে অবশ্যই ট্রাই করবেন। ধন্যবাদ।



JOIN WITH US ON DISCORD SERVER

banner-abbVD.png

Follow @amarbanglablog for last updates


Support @heroism Initiative by Delegating your Steem Power

250 SP500 SP1000 SP2000 SP5000 SP

Heroism_3rd.png

Sort:  
 last month 

ওয়াও! আপনার রেসিপিটি একদমই ইউনিক ছিলো আমার জন্য৷ কারণ আমি চিংড়ি মাছ অনেক খেয়েছি তবে চিংড়ি মাছ নারিকেলের দুধ দিয়ে কখনো খাই নাই। কেমন লাগে স্বাদ সম্পর্কেও তেমন ধারণা নেই। তবে আমার দেখেই খেতে ইচ্ছে হচ্ছে। আমার আনকমন খাবার খেতে বেশি ভালো লাগে। অনেক ধন্যবাদ ভাই, চিংড়ির সুন্দর একটি রেসিপি আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য।

 last month 

আর সেই চিংড়ি মাছ গুলো যদি রান্না হয় নারিকেলের দুধ দিয়ে তাহলে তো কথাই নেই, স্বাদ আরো দ্বিগুণ হারে বৃদ্ধি পাবে।

নারিকেল চিংড়ি রেসিপি নাম দেখেই জিভে জল চলে এসেছে ভাইয়া। আমি একবার এই রেসিপি খেয়েছিলাম আমার কাছে বেশ ভালো লেগেছিল। তবে নিজে কখনো তৈরি করিনি। আজকে আপনার রেসিপি তৈরির প্রসেস দেখে শিখে নিলাম কিভাবে এই রেসিপি তৈরি করতে হয়। আমি অবশ্যই বাসায় ট্রাই করবো। ধন্যবাদ আপনাকে ভাইয়া।

 last month 

সত্যি বলতে এই প্রথম আমি এমন রেসিপি দেখলাম। এটি একটি ইউনিক পোস্ট ছিল ভাইয়া। নারিকেল দিয়ে আমি বিভিন্ন তরকারি রান্না করেছি। কিন্তু এভাবে চিংড়ি মাছ ভুনা করেনি। আজ আপনার পোষ্টের মাধ্যমে তা শিখে নিলাম। ধন্যবাদ আপনাকে সুন্দর একটা রেসিপি শেয়ার করার জন্য।

 last month 

নারিকেল দিয়ে চিংড়িমাছ আসলেই খুবই সুস্বাদু খাবার। এটা আসলে আমি ছোটবেলা থেকেই অনেক বেশি পছন্দ করি। আপনার আজকের রেসিপি দেখে সত্যি ভাই খুবই খেতে ইচ্ছে করছে। আরও অনেক লোভনীয় দেখাচ্ছে আপনার রেসিপিটি। মায়ের হাতের এই রেসিপিটি আসলে আমার কাছে খুবই ভাল লাগত, আর আপনার রেসিপি দেখে সেই রেসিপির কথা মনে পড়ে গেল। ধন্যবাদ আপনাকেই মজার রেসিপি শেয়ার করার জন্য।

 last month 

অসাধারণ একটি রেসিপি শেয়ার করেছেন আজ। বহুদিন নারকেল চিংড়ি খাই না। খুলনা এলাকায় এ ধরনের নারকেল দিয়ে রান্নার প্রবণতা অনেক বেশি। অনেকদিন খুলনা থাকার কারণে সেখানেই এ ধরনের রেসিপির সঙ্গে পরিচিত হই। খুবই সুস্বাদু হয় এই খাবার। অভিজ্ঞতা থেকে জানি। ধন্যবাদ এমন সুন্দর একটি রেসিপি শেয়ার করার জন্য।

 last month 

ভাইয়া আপনার তৈরি নারিকেল চিংড়ি রেসিপি দেখেই তো জিভে জল চলে আসছে। ভীষণ লোভ হচ্ছে খাওয়ার জন্য। রেসিপির কালার টা দারুন এসেছে। আমি এই নারিকেল চিংড়ি রেসিপি ঢাকায় আমার এক আত্মীয়ের বাসায় খেয়েছিলাম। আর তখন থেকেই এই রেসিপিটি আমার কাছে খুবই প্রিয়। এখনো আমি ওই আত্মীয়ের বাসায় গেলে আমার প্রিয় খাবার জেনে এই সুস্বাদু রেসিপিটি তৈরি করে খাওয়ায়। সত্যিই ভাইয়া, নারিকেল চিংড়ি রেসিপি দুর্দান্ত রেসিপি। যে খাইনি সে হয়তো কখনো এই রেসিপির স্বাদ বুঝতে পারবে না। অনেক অনেক দিন পর আপনার তৈরি নারিকেল চিংড়ি রেসিপি দেখে খুবই ভালো লাগলো। খুব সুন্দর সাজিয়ে গুছিয়ে পরিবেশন করেছেন এবং রন্ধন প্রণালীর প্রতিটি ধাপ সুন্দরভাবে দেখিয়েছেন এজন্য আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

 last month 

ভাইয়া আপনি আজকে ইউনিক রেসিপি শেয়ার করেছেন নারিকেল চিংড়ি রেসিপি বাহ দারুন। এর আগে এভাবে কখনো খাইনি। আপনার রেসিপি দেখে শিখে নিলাম। ধন্যবাদ আপনাকে ভাইয়া

 last month 

চিংড়ি মাছ আমার খুবই প্রিয়। চিংড়ি মাছের যেকোনো তরকারি খেতে আমার খুবই ভালো লাগে। আপনার রেসিপি দেখতে যে রকম সুস্বাদু দেখাচ্ছে খেতেও নিশ্চয়ই খুবই সুস্বাদু হয়েছে। খুবই অনেক একটি রেসিপি শেয়ার করেছেন ভাইয়া। নারিকেল বাটা দিয়ে চিংড়ি মাছ ভুনা খেয়েছি। কিন্তু নারকেলের দুধ দিয়ে এরকম রান্না করে খাওয়া হয়নি। অবশ্যই বাসায় একদিন ট্রাই করে দেখব। আপনার কাছ থেকে রান্নার পদ্ধতিটা শিখে নিলাম। আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ ইউনিক একটি রেসিপি আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য

 last month 

অনেকেই এভাবে নারিকেলে দুধ দিয়ে চিংড়ি মাছ রান্না করে খেয়েছে আবার অনেকে খায়নি।

নারিকেল চিংড়ি রেসিপি দারুন হয়েছে ভাইয়া। নারিকেল চিংড়ি রেসিপির স্বাদের কথা অনেক শুনেছি এবং ইউটিউবে এই রেসিপির অনেক ভিডিও দেখেছি। তবে কখনো খাওয়া হয়নি। আমার খুব ইচ্ছা ছিল এই রেসিপি তৈরি করে খাওয়ার জন্য। আজকে যখন আপনার রেসিপি দেখলাম তখন একেবারেই মনস্থির করে নিলাম এই রেসিপি দেখে দেখে নারিকেল চিংড়ি রেসিপি তৈরি করবো। লোভনীয় একটি রেসিপি তৈরির সম্পূর্ণ প্রসেস সুন্দরভাবে উপস্থাপন করার জন্য আপনাকে জানাচ্ছি ধন্যবাদ। সেই সাথে আপনার জন্য শুভকামনা ও ভালোবাসা রইলো ভাইয়া।♥️♥️♥️♥️

 last month 

চিংড়ি মাছ আমার অনেক পছন্দের। চিংড়ি মাছ অনেক ভাবেই রান্না করে খেয়েছি কিন্তু নারকেল দুধ দিয়ে চিংড়ি মাছ খাইনি কখনো। তবে এই রান্না যে খুবই সুস্বাদু হয়েছে তা বুঝতে বাকি নেই। আপনার রান্না করা নারিকেল দুধ দিয়ে চিংড়ির এই রেসিপিটি দেখেই লোভ লেগে গেলো। শিখে নিলাম বাসায় ট্রাই করবো।
ধন্যবাদ ভাইয়া।

 last month 

আহা, দাদা, এই জিনিস যা খেতে হবে, উফফ, সেরা লাগবে দাদা,

আমি চিংড়ি খেতে খুব ভালোবাসি। মাছ খাইনা ।তবে চিংড়ি তো জলের পোকা। তাই হয়তো ওকে খেতে ভালো লাগে। আর নারকেল চিংড়ি তো মালাইকারির মতই লাগবে।

 last month 

আমিও অনেকবার দেখেছি নারিকেলের দুধ দিয়ে চিংড়ি মাছের রান্না করতে। কিন্তু আমি নিজে কখনো এইরকম ভাবে রান্না করি নাই। তাছাড়া সব থেকে বেশি ভালো লাগলো সবগুলো বাটা মশলা দিয়ে রান্না করেছেন। তাছাড়া রান্নার পুরো শেষের ছবিটা দেখে তো জিভে জল চলে আসলো। অনেক অসাধারণ লেগেছে আমার কাছে। খেতেও নিশ্চয়ই খুবই সুস্বাদু হয়েছে।

 last month 

ভাইয়া প্রথমে দেখে এতটাই ভালো লেগেছে মনে হচ্ছে খেয়ে আসি। কারণ এই রেসিপি আমার কখনোই খাওয়া হয় নাই। সত্যি বলছি নারিকেল চিংড়ি রেসিপি আমি খুব অল্পতেই বাসায় তৈরি করব আপনার এই পোস্ট দেখে। অসংখ্য ধন্যবাদ আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য। আপনার জন্য শুভকামনা রইল।

 last month 

চিংড়ি মাছ আমার অনেক প্রিয় সেটি অনেকভাবেই খেতে ভালো লাগে। যেমন করে চিংড়ির মালাইকারী অথবা চিংড়ির দোপেয়াজু, বা আপনি আজকে যেভাবে শেয়ার করেছেন এভাবেও। এক কথায় চিংড়ি যে কোনভাবেই রান্না করলে আমার অনেক ভালো লাগে ধন্যবাদ আপনাকে প্রিয় একটি রেসিপি শেয়ার করার জন্য।

 last month 

চিংড়ি মাছ তাও আবার নারিকেলের দুধ দিয়ে উফ ভাবতেই মুখের ভেতর কি যেন চলছে। একা একা হয়তো এই রেসিপিটা তৈরি করা আমার পক্ষে সম্ভব না এখন, তবে মাথায় রেখে দিলাম ভাই, কোন একদিন অবশ্যই চেষ্টা করব যেদিন দোখা হব 😉। সবশেষে এত চমৎকার এসেছে তরকারির রংটা 👌👌👌। আজকের দেখা সারা রেসিপি।

 last month 

নদীর চিংড়ি মাছ এমনিতে অনেক মজা হয়। আপনি আজকে খুবই মজাদার রেসিপি তৈরি করলেন ভাইয়া। আপনি চিংড়ি মাছ নারিকেল দিয়ে সুস্বাদু রেসিপি আমাদের সাথে শেয়ার করলেন। রেসিপি দেখে অনেক সুস্বাদু মনে হচ্ছে। এত মজাদার রেসিপি আমাদের সাথে শেয়ার করেছেন অসংখ্য ধন্যবাদ।

 last month 

নারিকেল চিংড়ি রেসিপি আমি জীবনে খাইনি কখনো। আপনার এই পোস্টটি খুবই এক্সট্রাঅরডিনারি লেগেছে আমার নিকট। প্রতিটি ধাপ এত সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেছেন যা আমার জন্য তৈরী করা অনেক সহজ হয়ে গেল। ধন্যবাদ ভাই এত লোভনীয় একটি খাবারের রেসিপি পোস্ট আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য।

 last month 
নদীর ছোট ছোট চিংড়ি মাছ খেতে আমি ভীষণ পছন্দ করি। আলু-বেগুন অথবা চাল কুমড়ো দিয়ে চিংড়ি মাছ অনেক খেয়েছি। এবং অনেক শুনেছি যে নারিকেল দিয়ে চিংড়িমাছ খেতে খুবই সুস্বাদু হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত নারিকেল দিয়ে চিংড়িমাছ খাওয়া হয়নি। কিন্তু ইচ্ছা আছে রেসিপিটি আমি বাসায় তৈরি করে খাব। আজকে আপনার মাধ্যমে খুবই সুন্দর ভাবে নারিকেল দিয়ে চিংড়ি মাছের রেসিপি দেখতে পেলাম। যা দেখে আমি খুব সহজেই এটি এখন বাসায় তৈরি করে খেতে পারব। ধন্যবাদ জানাচ্ছি ভাইয়া আমাদের মাঝে চিংড়ি মাছের এত সুন্দর একটি মজাদার রেসিপি উপস্থাপন করার জন্য।
 last month 

ভাইয়া আপনার নারিকেল চিংড়ি রেসিপিটি খুবই সুস্বাদু হয়েছে দেখেই বোঝা যাচ্ছে। এমনিতেই নারিকেল চিংড়ি আমার কাছে বেশ ভালো লাগে। আর আপনি দারুণভাবে রান্না করেছেন।এমনিতে নদীর চিংড়ি তো বেশ সুস্বাদু, আর তাতে যদি নারিকেলের দুধ দেওয়া হয় তাহলে তার স্বাদ আরো বহু গুনে বেড়ে যায় ।ধন্যবাদ আপনাকে এত সুন্দর মজার একটি রেসিপি শেয়ার করার জন্য।

 last month 

চিংড়ি মাছ অনেক খেয়েছি কিন্তু এভাবে নারিকেল দিয়ে খাওয়া হয়নি।
ঠিক বলেছেন একবার এভাবে খাওয়া উচিত।
ইনশাআল্লাহ খুব তাড়াতাড়ি তৈরি করবো।
দারুন রেসিপি ছিল ভাই 👌

 last month 

ভাইয়া এই কথাটা সত্যি যে নারিকেল দিয়ে চিংড়ি মাছের রেসিপি আনার কখনো খাওয়া হয়নি। চিংড়ি আমার অত্যন্ত প্রিয় একটি মাছ আমি চিংড়ি দিয়ে অনেক প্রকার রেসিপি করে খেয়েছি। আপনি অত্যন্ত চমৎকার করে নারিকেলের দুধ দিয়ে চিংড়ি মাছের ভুনা রেসিপি করেছেন। রেসিপিটি নিঃসন্দেহে খেতে অনেক সুস্বাদু হয়েছিল। আপনার সুন্দর উপস্থাপনা দেখে আমিও খুব সহজেই রেসিপিটি করার ট্রাই করবো। সুস্বাদু রেসিপিটি শেয়ার করার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

 last month 

আমাদের বাসায় ও আমি রান্না করি নারিকেল চিংড়ি। তবে আমরা এটাকে চিংড়ির মালাইকারি বলি।খেতে বেশ দারুন লাগে।আমারও পছন্দের রেসিপি।আপনার রেসিপির কালাটাও বেশ দারুন হয়েছে।ধন্যবাদ

 last month 

কিন্তু আমি শুধু দেখেই গেছি। খেতে আর পারি নি । 🙃

 last month 

কেন কেন? এলার্জি আছে?

 last month 

হুম আপু।। প্রচুর 😭

 last month 

ভাইয়া আমারও একই অবস্থা। তবে তাও আমি খাই, খেয়ে তারপর ঔষুধ খাই😉😉

 last month 

আমিও তাই করতাম। কিন্তু সমস্যাটা এতটাই বেশি যে এসব খাওয়া হারাম হয়ে গেছে।

 last month 

চিংড়ি মাছ আমার খুব প্রিয় একটি খাবার। আপনার রেসিপি টা দারুন ছিল ভাইয়া। এইভাবে কখনো খাওয়া হয়নি। আপনার রেসিপি টা দেখে জিভে জল চলে এসেছে একটুখানি খেতে ইচ্ছে করছে।স্বাদটা একটু গ্রহণ করতে পারতাম। আমাদের সাথে এত সুন্দর একটি রেসিপি শেয়ার করার জন্য আপনার প্রতি রইল ভালোবাসা অবিরাম ভাইয়া।

 last month 

ঠিক বলেছেন ভাইয়া অন্যান্য চিংড়ি থেকে আমার কাছে নদীর চিংড়িটা খেতে অনেক বেশি মজা লাগে। তাছাড়া এভাবে নারকেলের দুধ দিয়ে রান্না করলে তো কথাই নেই। একেবারে মুখে লেগে থাকার মত স্বাদ হয়। আপনার রান্নার মসলাগুলো দেখেই বুঝতে পারছি যে চিংড়ি খুবই সুস্বাদু হয়েছিল। আপনিও তো মনে হয় এই চিংড়ি খেতে পারেন নি । আপনার যে এলার্জি সমস্যা। আমার মত আপনাকেও এই চিংড়ি দেখে লোভ সংবরণ করতে হচ্ছে। হি হি হি।

 last month 

এই চিংড়ি খেতে পারেন নি ।

একদম ঠিক ধরেছেন আপু। আমার কপালে জোটে নি। 😪

 last month 

চিংড়ি মাছ খাওয়ার আসলে আলাদা একটা মজা আছে। আমার তো সবচেয়ে চিংড়ি মাছ খেতে খুবই ভালো লাগে।নারিকেল চিংড়ি রেসিপি তৈরি করলেন এটা দেখে আমার কাছে ভীষণ ভালো লাগলো। আমি তো চিংড়ি মাছ অনেক ধরনের রান্না করা খেয়েছি। কিন্তু আপনার রেসিপিটি আমার কাছে খুবই ইউনিক মনে হল। ভাবতেছি একদিন বাসায় তৈরি করে দেখব খেতে কেমন হয়। আপনার জন্য অনেক অনেক শুভকামনা আর ভালবাসা রইল।

 last month 

চিংড়ি মাছ আমারও অনেক প্রিয়। ধন্যবাদ আপু।

 last month 

ওয়াও ভাইয়া আপনি এত ভালো রান্না করতে পারেন এটা আমার জানা ছিল না। অসম্ভব সুন্দর হয়েছে আপনার রেসিপিটি। দেখেই তো ইচ্ছে করছে একটু খেয়ে দেখি। যেমন সুন্দর উপস্থাপনা,তেমন সুন্দর পরিবেশন। অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া আপনাকে এত মজাদার এবং লোভনীয় রেসিপি আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য। পরবর্তীতে এমন আরো লোভনীয় এবং মজাদার রেসিপির অপেক্ষায় রইলাম।

 last month 

তাহলে একদিন ভাইকে নিয়ে চলে আসেন।

 last month 

নারিকেল আমার প্রিয় ফল গুলোর মধ্যে অন্যতম।চিংড়ি মাছও দারুন পছন্দের।দুটি পছন্দের জিনিস মিলিয়ে তৈরি এই রেসেপি অবশ্যই ট্রা করে দেখতে হবে।ধন্যবাদ এত সুন্দর রেসিপি শেয়ার করার জন্য।

 last month 

দেখে মনে হচ্ছে অনেক মজার হবে । চিংড়ি অনেক ভাবে খাইছি ।কিন্তু একবার ও এভাবে খাই নাই । একবার রান্না কবার চেষ্টা করব । রেসেপি আমাদের শেয়ার করাব ধন্যবাদ ভাইয়া ।

Coin Marketplace

STEEM 0.27
TRX 0.07
JST 0.033
BTC 24421.85
ETH 1876.39
USDT 1.00
SBD 3.30