জেনারেল রাইটিং🕸️ আত্ম সমালোচনা।

in আমার বাংলা ব্লগ5 months ago

০৭ অগ্রায়ন , ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

২১নভেম্বর ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
০৭জমাদিউস সানি ১৪৪৫ হিজরী
মঙ্গলবার।
হেমন্তকাল।


আসসালামু আলাইকুম,আমি মোঃআলী, আমার ইউজার নাম @litonali।আমি বাংলাদেশ🇧🇩 থেকে। আশা করি আপনারা সবাই ভালো আছেন। আলহামদুলিল্লাহ আমি আপনাদের দোয়ায় ভালো আছি। মাতৃভাষা বাংলা ব্লগিং এর একমাত্র কমিউনিটি আমার বাংলা ব্লগ এর সবাইকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে আমার আজকের পোস্ট শুরু করছি


Source


গত সপ্তাহে আত্মসমালোচনা বিষয়ে প্রথম পর্ব আপনাদের মাঝে প্রকাশ করেছিলাম আজ দ্বিতীয় পর্ব আলোচনা করব। আত্মসমালোচনার সবথেকে বড় উপকারিতা হলো নিজের দোষ এবং ভুলত্রুটি সম্পর্কে জানতে পারা যায়। ফলে পরবর্তীতে ভালোর দিকে যাওয়া যায়। এবং মন্দ কাজগুলো থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায়। আত্ম সমালোচনা করলে আর একটা ভালো উপকার হচ্ছে নিজের মধ্যে জবাবদিহিতার উপলব্ধি হয়। যখনই আপনি জবাবদিহিতা মুলক উপলব্ধি নিজের মধ্যে আনতে পারবেন তখন আপনার ভালো কাজ অটোমেটিক করার প্রতি আকৃষ্ট হয়ে যাবেন এবং মন্দ কাজগুলো থেকে দূরে থাকা সম্ভব।


আত্ম সমালোচনা করলে নিজের মধ্যে দায়িত্বশীলতা বেড়ে যায় পরকালের ভাবনায় বিভোর হয়ে থাকা যায়। আর পরকালের ভাবনা ভাবা মানেই পাপ কাজ থেকে দূরে থাকা এবং পুণ্যের কাজগুলো বেশি বেশি করার মন-মানসিকতা তৈরি হওয়া। এজন্য বিশিষ্টজনেরা বলে থাকেন সেই তো প্রকৃত জ্ঞানী ব্যক্তি যে দিন শেষে আত্মসমালোচনার মাধ্যমে নিজেকে জবাবদিহিতা করে। আপনি যখন নিজেকে নিয়ে পর্যালোচনা করতে থাকবেন দেখবেন একসময় আপনার ভুলগুলো শুধরিয়ে সব সঠিক হয়ে যাচ্ছে আপনি ভালোভাবে জীবন ধারণ করতে পারছেন।


আত্ম সমালোচনা না করলে কিন্তু আমাদের মনের মধ্যে কুপ্রবৃত্তিগুলো থেকে যাবে। আত্ম সমালোচনা না করলে দিনশেষে আমাদের ভুলগুলো ধরা পড়বে না আমরা ভুলের মধ্য দিয়ে জীবন অতিবাহিত করতে থাকবো। আর অনেকগুলো ভুল যখন একত্র হয়ে যাবে তখন নিজের উপর নিজের অনেক ক্ষোভ প্রকাশ হতে থাকবে। এবং তাৎক্ষণিক ভাবতে থাকবো এই কাজগুলো যদি না করতাম এই কাজগুলো যদি বেশি বেশি করতাম তাহলে আজ এরকম পরিস্থিতির শিকার হতে হত না। এজন্য জ্ঞানী ব্যক্তির কাজ হবে দিনশেষে নিজেকে নিয়ে পর্যালোচনা করা।


এজন্য আসুন আমরা নিজেকে যদি প্রকৃত মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই তাহলে জীবনের প্রতিটি পদক্ষেপ সতর্কতার সাথে অতিক্রম করি। নীতিবান আদর্শবান এবং চরিত্রবান হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলি। আমি নিজে যখন ভালো হবো তখন সমাজের ৮-১০ জন লোক আমার দিকে প্রভাবিত হবে মনে করি। আর এরকম করে সবাই যখন ভালোর পথে চলে আসবে তখন একটি আদর্শ পরিবার আদর্শ সমান এবং আদর্শ রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে উঠবে মানব জাতি। অদূর ভবিষ্যতে মানব জাতি হয়তো বেশি বিপর্যয় পড়তে যাচ্ছে পৃথিবীর বর্তমান পরিস্থিতি থেকে জানা যায়। এজন্য নিজে ভাল পথে চলি ভাল কাজ করি এবং অন্যকে ভাল কাজ করার উৎসাহ দেয়। নিজের সাধ্যমত অপরের উপকারে এগিয়ে যাই।


ডিভাইসঃ Redmi Note 5



standard_Discord_Zip.gif

>>>>>|| এখানে ক্লিক করেন ডিসকর্ড চ্যানেলে জয়েন করার জন্য ||<<<<<

VOTE @bangla.witness as witness


witness_vote.png

OR

SET @rme as your proxy

witness_proxy_vote.png

Witness Banner 2.png


সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন।

ধন্যবাদ

Sort:  
 5 months ago 

যদিও আমি আপনার লেখা প্রথম পর্ব পরিনি। তবে এখন পরে এত বেশি ভালো লাগলো আপনাকে বলে বোঝাতে পারবো না। নীতিবান আদর্শবান এবং চরিত্রবান হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলি চমৎকার বলেছেন। নিজেকে তৈরি করতে পারলে আপনাকে দেখে অনেকেই শিখবে এটাই নিয়ম। আমাদের আগে পরিবর্তন হতে হবে। অনেক ধন্যবাদ আপনাকে ভাইয়া।

Coin Marketplace

STEEM 0.28
TRX 0.11
JST 0.034
BTC 66065.02
ETH 3182.04
USDT 1.00
SBD 4.05