পটেটো প্যান পিজ্জা

in আমার বাংলা ব্লগ9 days ago

পটেটো প্যান পিজ্জা

হ্যালো বন্ধুরা।
সবাই কেমন আছেন ? আশাকরি সবাই ভালো আছেন। আজকে আমি আবারো নতুন একটি রেসিপি নিয়ে আপনাদের সাথে যুক্ত হলাম।

1.jpg

পটেটো প্যান পিজ্জা এই রেসিপিটি হলো অল্প সময়ে বড় সমাধান। এই ভাবে হুটহাট যেকোনো সময় অল্প সময়ের বড় রকম খিদাকে মানানো যাই তাও আবার পটেটো প্যান পিজ্জা দিয়ে। এর জন্য শুধু প্রয়োজন হবে মূল উপকরণ গুলো। আর আমি আমার বাসায় সবসময় সকল ধরণের উপকরণ রাখার চেষ্টা করি যাতে করে যেকোনো সময় যেকোনো কিছু নিজের ইচ্ছা মতো তৈরি করে খাওয়া যায়। পটেটো প্যান পিজ্জা খুবই ভালো লাগে খেতে আর আপনারা সকলেই জানেন আলু আমার পছন্দের একটি সবজি তাই আলু দিয়ে এই পিজ্জাটি তৈরি করা হয়েছে মজাদার না হয়ে কি আর পারে। আজকে আমি আমার বাসায় নাস্তার জন্য পটেটো প্যান পিজ্জা তৈরি করেছি ও সেই সাথে আপনাদের সাথেও সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করার চেষ্টা করেছি।

একটু খানি ইচ্ছা আর প্রয়োজনীয় উপকরণ ও অল্প সময় দিলেই এই মজাদার খাবারটি তৈরি করে খাওয়া যাই। আর সেই মজাদার খাবার খাওয়ার পাশাপাশি যদি সকলকে দেখানো যাই যে কি ভাবে রেসিপিটি তৈরি করেছি তাহলে বিষয়টি আরো ভালো হয়। আর আমিও সবসময় সেটাই চেষ্টা করি যাতে করে আমার তৈরি করা রেসিপিটি আপনারাও শিখে নিতে পারেন ও অল্প সময়ে পেটের বড় সমাধান দিতে পারেন। পটেটো প্যান পিজ্জা তৈরি করতে আমার প্রয়োজন হয়েছে - আলু ,গাজর, পাওরুটি, ডিম, গুঁড়া দুধ, টমেটো সস ও মসলা উপকরণ। যা থাকলে আপনিও খুব সহজেই বাসায় তৈরি করে নিতে পারেন পটেটো প্যান পিজ্জা।

আজকে আমি আমার এই পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের সাথে শেয়ার করবো কি ভাবে বাসায় তৈরি করেছি পটেটো প্যান পিজ্জা। পটেটো প্যান পিজ্জা তৈরি করার প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত প্রতিটি ধাপ সুন্দর ভাবে একে একে শেয়ার করেছি ও ছবির মধ্যে লিখে দিয়েছি। আপনারা খুব সহজেই আমার পোস্ট দেখে বাসায় এভাবে পটেটো প্যান পিজ্জা তৈরি করতে পারেন ও শিখে নিতে পারেন। আশাকরি আপনাদের কাছে আমার আজকের পটেটো প্যান পিজ্জা তৈরিটি ভালো লাগবে। তাহলে চলুন শুরু করা যাক...........
ধাপ-1.

2.jpg

ধাপ-2.

3.jpg

ধাপ-3.

4.jpg

ধাপ-4.

05.jpg

ধাপ-5.

5.jpg

ধাপ-6.

6.jpg

ধাপ-7.

07.jpg

ধাপ-8.

7.jpg

ধাপ-9.

8.jpg

ধাপ-10.

9.jpg

ধাপ-11.

10.jpg

ধাপ-12.

11.jpg

ধাপ-13.

12.jpg

ধাপ-14.

13.jpg

ধাপ-15.

14.jpg

ধাপ-16.

15.jpg

ধাপ-17.

16.jpg

ধাপ-18.

17.jpg

ধাপ-19.

18.jpg

ধাপ-20.

19.jpg

ধাপ-21.

20.jpg

ধাপ-22.

21.jpg

ধাপ-23.

22.jpg

আমার আজকের বাসায় পটেটো প্যান পিজ্জা তৈরিটি কেমন হয়েছে অবশ্যই মন্তব্য করে জানাবেন। সবাই ভালো থাকবেন , সুস্থ থাকবেন। সবাইকে অনেক ধন্যবাদ।

1.png

break.png

banner-abb23.png

Sort:  
 9 days ago 

পটেটু প্যান পিজ্জা রেসিপিটি দেখে মনে হচ্ছে অনেক সুস্বাদু হয়েছে।আমার অনেক ভালো লেগেছে
রেসিপিটি কারণ রেসিপিটি একদম নতুন মনেহচ্ছে । অনেক ভালো লাগার মত একটি রেসিপি। আমি আমার বেবিদের এই রেসিপিটি বাসায় একদিন বানিয়ে খাওয়াবো। ইউনিক একটি রেসিপি আমাদের মাঝে উপস্থাপন করার জন্য ধন্যবাদ আপু।

 9 days ago 

পটেটো প্যান পিজ্জা দেখি খুবই মজাদার মনে হচ্ছে। আমি প্রথমে ভেবেছি এটি ফটোগ্রাফি পোস্ট করেছেন। হয়তো রেস্টুরেন্ট থেকে কিনে নিয়ে আসা। কিন্তু আপনি নিজের তৈরি করেছেন। সত্যিই আপনার দক্ষতা দেখে মুগ্ধ হয়ে যায়। আপনার রেসিপি অসাধারণ হয়েছে।

 8 days ago (edited)

বাবারে মাথায় কি বুদ্ধি। এভাবে আলু দিয়ে যে পিজ্জা বানানো যায় তাই তো আমি জানতাম না।তবে এভাবে আলু খেতে খেতে আমি একেবারে আলুর মতই হয়ে যাবো😂😂।যাই হোক যদিও পটেটো পিজ্জা দেখে লোভনীয় লাগছে।জটপট সমাধানের রেসিপি।প্রতিটি ধাপ আপনি খুব সুন্দর করে দেখিয়েছেন। ধন্যবাদ

 9 days ago 

দারুন একটা সন্ধ্যেবেলার জলখাবার বানিয়েছেন। এই ভাবে ঘরে থাকা টুকটাক সুস্বাদু জিনিস দিয়ে এত সুন্দর পেট ভরার খাবার বানালে বাইরে আর খেতে হবে না। জিনিসটা ভাজা ভাজা হওয়ায় আরোই টেম্পটেটিং লাগছে। ধন্যবাদ আপনাকে।

 9 days ago 

পটেটো প্যান পিজ্জা যতটা সহজ বলছেন আপু, ঠিক ততটাও সহজ নয়। রন্ধন প্রণালীটা বেশ ঝামেলাই মনে হচ্ছে। আপনি সেরা রাধুনি, তাই আপনার কাছে রেসিপিটি একদম সহজ মনে হচ্ছে। যাই হোক আপু, আজকের পটেটো প্যান পিজ্জা রেসিপি দেখেই বোঝা যাচ্ছে খুবই লোভনীয় রেসিপি। খেতেও নিশ্চয়ই অনেক অনেক মজার হয়েছে। একটু চেখে দেখতে পারলে ভীষণ ভালো হতো। ধন্যবাদ আপু এত মুখরোচক একটি খাবার শেয়ার করার জন্য।

 9 days ago 

আপু আপনি পটেটো প্যান পিজ্জা কত সুন্দরভাবে করলেন। সত্যি ভাল লাগলো। এভাবে কিচু উপকরন দিয়ে বিকেলের নাস্তা সত্যি ই অসাধারণ। অনেক ধন্যবাদ আপু শেয়ার করার জন্য। অনেক অভিনন্দন আপনাকে।

 9 days ago 

ওয়াও আপু পটেটো প্যান পিজ্জা দেখতেই তো লোভনীয় লাগছে ।না জানি খেতে কত সুস্বাদু হয়েছিল।আপনার আরও একটি ইউনিক রেসিপি দেখতে পেলাম আপু।বেশ সুন্দর ভাবে বর্ণনা করেন আপনি রান্নার ধাপগুলো।ঠিকই বলেছেন আপু অল্প সময়ে বড় রকম খিদের সমাধান দেয় আসলেই e ধরনের ফাস্ট ফুড জাতীয় খাবার।ধন্যবাদ আপনাকে সুন্দর রেসিপিটি শেয়ার করার জন্য।

 8 days ago 

ওরে বাবা নাম দেখেই তো চোখ কপালে উঠে গেল আমার আপু। এত রেসিপির আইডিয়া পান কি করে গো!! এমন ভাবে পিজ্জা হয়ে যেতে পারে, রীতিমত অবাক। আর সত্যি বলতে উপকরণ গুলোও এমন ধারার যেগুলো দিয়ে খাবার বানালে টেস্টি না হয়ে উপায় নেই 👌। আলু আমার নিজেরও খুব ভালো লাগে খেতে। সেই আলুর সাথে আরো কিছু উপকরণ দিয়ে যদি এমন সুস্বাদু কিছু হয়, তাহলে তো জমে ক্ষীর একদম।

Coin Marketplace

STEEM 0.18
TRX 0.05
JST 0.022
BTC 16588.88
ETH 1216.77
USDT 1.00
SBD 2.18