গ্রাম ভ্রমণের অভিজ্ঞতা

in আমার বাংলা ব্লগ4 months ago (edited)

received_1471483916538640.jpeg

received_142683964689794.jpeg

received_597924131369726.jpeg

received_544544830093420.jpeg

ভ্রমণ করতে কার না ভালো লাগে। আমিও এর ব্যতিক্রম নই। কোথাও ঘুরতে যাওয়ার জন্য আমার না নেই। ঘুরতে যাওয়ার স্থানটি যদি গ্রাম হয় তাহলে মন্দ হয় না। কিছুদিন আগে আমিও ঘুরতে গেছিলাম একটি গ্রাম। গ্রামের নাম শৈলমারী। প্রকৃতির সৌন্দর্যের অপরূপ লীলাভূমি এই গ্রামটি। যার ফলে গ্রামের সৌন্দর্য আকৃষ্ট করবে যে কাউকেই।

একটি আদর্শ গ্রাম যা যা থাকা দরকার তার সবই রয়েছে এই গ্রামে। মসজিদ, মাদ্রাসা,স্কুল সবই রয়েছে গ্রামটিতে। গ্রামটিতে নিম্ন আয়ের লোকজনের সংখ্যা বেশি। গ্রামের বেশিরভাগ লোকজন কৃষিকাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে।এই গ্রামে সাধারণত শিক্ষিত লোকজনের সংখ্যা খুবই কম। প্রায় প্রতিটি বাড়িতে হাঁস-মুরগি,গরু-ছাগল, মহিষ-ভেড়া ইত্যাদি গৃহপালিত প্রাণী রয়েছে। পুরুষরা ক্ষেতে কাজ করে,আর মহিলারা দেখাশোনা করে এসব গৃহপালিত প্রাণী গুলোর। গ্রামের লোকজন সাধারণত কাজ করে তাদের সারাটা দিন অতিবাহিত করেন। সারাদিন কাজের মধ্যে থাকায় তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও উচ্চমানের। ফলে তাদেরকে রোগবালাই স্পর্শ করতে পারে না।

received_1332619703821567.jpeg

received_219098696849169.jpeg

রাস্তাঘাট গুলো তেমন একটা উন্নত না, এখনো পাকা করে নি। এজন্য গ্রামের ভেতর দিয়ে চলাচলের জন্য উন্নত মানের গাড়িঘোরার পরিবর্তে রয়েছে ভ্যান গাড়ি। গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে চলা নদী গ্রামের সৌন্দর্য আরো বৃদ্ধি করেছে। নিরিবিলি পরিবেশ, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য এবং নদীর মাধুর্য সব মিলে আকৃষ্ট করবে যে কাউকে। গ্রামের লোকজন অনেক সহজ সরল।একই গ্রামের সবাই সবার সঙ্গে পরিচিত হওয়ায় সবার মধ্যে আন্তরিকতাও অনেক বেশি।গ্রামটি নিম্নভূমিতে অবস্থিত হওয়ায় বর্ষার মৌসুম গুলোতে প্রায় বন্যা হয়। বর্ষা মৌসুমে পানি দিয়ে যখন জমি গুলো ভরাট হয়ে যায়, তখন লোকজন জমিতে মাছ ধরার জন্য জাল নিয়ে যায়।

received_980447666142125.jpeg

received_4495241383866904.jpeg

received_632858007695075.jpeg

received_400792801406841.jpeg

গ্রামের ছোট ছেলে মেয়ে গুলো সারাক্ষণ ঘুরে বেড়ায়, বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলা করে এবং গোসল করার সময় হলে নদীতে গিয়ে ডুব দেয়।ওই গ্রামের প্রতিটি বাড়িতেই চাষাবাদ করা হয় বিভিন্ন ধরনের শাক- সবজি।ধান, আলু এবং বিভিন্ন ধরনের শাকসবজি লোকজন নিজ উদ্যোগে চাষাবাদ করায় খুব কম খরচে তাদের সংসার চলে যায়।গ্রামের কিছু কিছু পরিবার তাদের সারা মাসের খরচ চালায় মাত্র ২-৩ হাজার টাকায়,যা শহরের একটি পরিবারের লোকজনের কল্পনার বাহিরে।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের দিক থেকে গ্রামের সঙ্গে তুলনা হয়না অন্য কোন কিছুর। আর আমার ভ্রমণ করা গ্রামটিতে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের উৎস গুলোর কোন কমতি নেই। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অপরূপ একটি লীলাভূমি হল শৈলমারী গ্রাম।তবে গ্রামের লোকজন এখন শিক্ষিত হয়ে যাওয়ায় তারা শহরের দিকে পাড়ি জমানোর চেষ্টা করছে। যার ফলে গ্রামের এসকল ঐতিহ্য গুলো বিলুপ্তির দিকে চলে যাচ্ছে।

received_272329097761145.jpeg

received_227334102536145.jpeg

received_558945458642522.jpeg

received_634690267920444.jpeg

Sort:  
 4 months ago 

সুন্দর ছিল প্রকৃতির দৃশ্য গুলো এবং আপনার অভিজ্ঞতা ভালো ছিল । সব মিলিয়ে সুন্দর।

 4 months ago 

সুন্দর মন্তব্য করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

 4 months ago 

সত্যি গ্রামটা অনেক সুন্দর। গ্রামের মাটির রাস্তা সবুজ ক্ষেত একেবারে অসাধারণ। গ্রামের মানুষের জীবনযাএার মান খুবই সাধারণ, যা শহরের ছেলেদের কল্পনার বাইরে। সত্যি ভাই গ্রামটা সুন্দর এবং খুব ভালো লিখেছেন। আপনার জন্য শুভকামনা।।

 4 months ago 

আপনাকেও অসংখ্য ধন্যবাদ ভাই আপনার সুন্দর মতামতের জন্য।

 4 months ago 

ভ্রমনের দিক থেকে গ্রাম খুব সুন্দর একটি যায়গা।এখান থেকে বিশুদ্ধ অক্সিজেন পাওয়া যায়,বিশুদ্ধ পরিবেশ।বিভিন্ন শ্রেনি পেশার মানুষের সাথে দেখা হয় এক সুন্দর অনুভুতি বলতে গেলে।গ্রামীন পরিবেশে খুব সুন্দর সময় কাটিয়েছেন।অনেক ধন্যবাদ এবং শুভ কামনা।

 4 months ago 

আপনাকেও অসংখ্য ধন্যবাদ ভাই।

 4 months ago 

সত্যিই ভাই আপনার পোস্টটি অসাধারণ ছিল। আপনার ফটোগ্রাফের মাধ্যমে পুরো গ্রামের চিত্র উঠে এসেছে। সবুজে সেমল ঘেরা সোনার বাংলা। গ্ৰামের তারা বসবাস করে মন অনেক বড়। তারা অল্প আয়ের মানুষ তবে তাদের সুখের সিমা নেই। ভাইয়া আপনি অনেক সুন্দর করে উপস্থাপন করেছেন। আপনার জন্য শুভকামনা রইলো

 4 months ago 

আপনাকেও অসংখ্য ধন্যবাদ ভাই আপনার সুন্দর মতামতের জন্য।

 4 months ago 

সত্যিই আপনার গ্রাম ভ্রমণ টি অনেক সুন্দর ছিল, আরো সুন্দর ছিল আপনার ফটোগ্রাফি গুলো। যাই হোক আমাদের সাথে এরকম পোস্ট শেয়ার করার জন্য আপনাকে আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ।

 4 months ago 

আপনাকেও ধন্যবাদ ভাই।

 4 months ago 

গ্রাম ভ্রমণের সুন্দর সুন্দর আলোকচিত্র তুলে ধরেছেন এবং কথাগুলো মন ছুয়ে যায়।

 4 months ago 

ধন্যবাদ আপনাকে।

 4 months ago 

আপনার গ্রামে ঘুরতে যাওয়ার মুহুর্ত টা খুবই সুন্দর ছিল। খুব ভালোভাবে বর্ণণা করছেন। ফটোগ্রাফি গুলো অনেক ভালো লেগেছে। গ্রামের চলমান দৃশ্য পটভূমি তুলে ধরার জন্য ধন্যবাদ।

 4 months ago 

আপনাকেও অসংখ্য ধন্যবাদ ভাই।

পৃথিবীতে সৌন্দর্যের 80 ভাগ গ্রামেই রয়েছে বলে আমি মনে করি।গ্রামের সৌন্দর্য আমি খুবই উপভোগ করি।আপনি গ্রামের পরিবেশটা খুব ভালো উপভোগ করেছেন।সেই সাথে গ্রামের অনেকগুলো দৃশ্য আমাদের মাঝে তুলে ধরেছেন।অনেক ধন্যবাদ আপনাকে।

 4 months ago 

আপনাকেও অসংখ্য ধন্যবাদ ভাই।

 4 months ago 

খুব সুন্দর মুহূর্ত ছিলো ভাইয়া। গ্রাম টি খুব সুন্দর এবং ছবি গুলো দারুণ হয়েছে। অনেক শুভ কামনা রইলো।

 4 months ago 

ধন্যবাদ আপু আপনার সুন্দর মন্তব্যের জন্য।

 4 months ago 

আমরা গ্রামেরই মানুষ ছোট থেকে গ্রামেই মানুষ হয়েছি।তাই গ্রাম আমার খুব প্রিয় জায়গা।আর আপনি দক্ষতার সাথে গ্রামের খুটিনাটি দৃশ্যগুলোসহ বিষয়বস্তু তুলে ধরেছেন সে জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা রইল। ভারো থাকবেন।

 4 months ago 

আপনাকেও অসংখ্য ধন্যবাদ ভাই।

 4 months ago 

আপনি খুব সুন্দর ফটোগ্রাফি করেছেন আপনার ফটোগ্রাফির মাধ্যমে গ্রাম বাংলার সৌন্দর্য খুব সুন্দর ভাবে ফুটে উঠেছে বিশেষ করে পোলাপানের গোসল করা টা আমার কাছে খুব ভালো লাগছে সে সেইসাথে সুন্দর আলোচনা করেছেন আপনাদের জন্য শুভকামনা রইল

 4 months ago 

এত সুন্দর মন্তব্য করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ ভাই।

 4 months ago 

গ্রামীণ দৃশ্য ও প্রকৃতি খুব সুন্দর ভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন ভাই ছবিগুলোর মাধ্যমে। আসলে গ্রামের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য এর সাথে কোন কিছুর তুলনা হবে না।

 4 months ago 

ধন্যবাদ আপনাকে।

 4 months ago 

প্রকৃতির অনেক কিছুই আপনি আপনার লেখা ও ছবিতে প্রকাশ করেছেন।এছাড়া খুব সুন্দরভাবে গ্রামের সৌন্দর্য্য ফুটিয়ে তুলেছেন আপনার ফোটোগ্রাফিতে।ধন্যবাদ ভাইয়া।

 4 months ago 

আপনাকে ধন্যবাদ দিদি।

Coin Marketplace

STEEM 0.31
TRX 0.06
JST 0.042
BTC 36330.65
ETH 2562.82
USDT 1.00
SBD 4.05