ঈমাম আজম আবু হানিফা (রহঃ) যে ফয়সালা দিযেছিলেন তা আজ মুসলমান ও (Imam Abu Hanifa)Part -1

in #life2 years ago

ঈমাম আবু হানিফা (রহঃ) ছিলেন ফিকাহ (ইসলামি মাসলা ও মাসায়েল) শাস্রের উদ্ভাবক। চার ইমামের মধ্যে তিনিই একমাত্র তাবেঈন যিনি একাধিক সাহাবীদের দেখেছেন। তিনিই প্রথম ইসলামী আইনশাস্র কিতাবাকেরে লিপিবদ্ধ করান।

ঈমাম আজম আবু হানিফা (রহঃ) শৈশবকাল থেকেই অত্যন্ত মেধাবী, প্রখর বুদ্ধিমত্তা ও অসাধারণ স্মৃতিশক্তির স্মৃতিশক্তির অধিকারী ছিলেন। শৈশবকালে তিনি পবিত্র কুরআনে করিম হিফজ করেন। কুরআন তিলাওয়াতের প্রতি তার খুব আসক্তি ছিল। তার সাধারণ অভ্যাস ছিল প্রতিদিন দুই খতম করা অর্থাৎ মাসে ৬০ খতম পড়তেন। রাতে তাহাজ্জুদে ও দিনে নফল নামাজে। রমজান মাসে ৬১ খতম করতেন,এক খতম তারাবীতে।যে সারা বছর এক খতমও করে না সে সন্দেহ করবে।

একদিন ঈমাম আযম আবু হানিফা (রহঃ)এর মজলিসে জনৈক যুবক উপস্থিত হয়ে জিজ্ঞেস করল, এ পযন্ত অাপনি যত ইজতেহাদ করেছেন এর মধ্যে এমন কোন ইজতেহাদ আছে কি যার ফলে পরবর্তীতে দুঃখ বোধ করেছেন?

6c54c95edd5cdb4132537b5c894e3159--child-hand-temporary-work.jpg

Source

ঈমাম আযম আবু হানিফা (রহঃ) বলেন, হ্যাঁ একটি ইজতেহাদের জন্য এখনো আমার দুঃখ হয়। সেটি হল , একবার কিছু লোক আমাকে জিজ্ঞেস করেছিল যে,এক গর্ভধারিনীর মৃত্যু হয়েছে তার পেটে বাচ্চা নড়াচড়া করতে দেখা যাচ্ছে। এমতাবস্থায় কি করা যেতে পারে?

আমি বললাম, মহিলার পেট কেটে বাচ্চা বের করে নিন। অতপর আমি চিন্তা করলাম যে, এ ফয়সালাটি কেমন হল? একটি মৃতদেহকে আমি কস্ট দেয়ার হুকুম কেন দিলাম? এছাড়া পরবর্তীতে পেটের ভিতর থেকে বের করা সেই বাচ্চাটি জীবিত ছিল, না মৃত তাও জানতে পারিনি। তাই আমি সেই ইজতেহাদের কারনে এখনো আফসোস করি। প্রশ্নকারী তখন আরয করল, হযরত! এটি তো আফসোসের কথা নয়। আমিই সেই মায়ের পেটের বাচ্চা। আপনার ইজতেহাদের বরকতে আল্লাহ আমাকে জীবন দিয়েছেন। আল্লাহ তায়ালা আপনাকে উত্তম প্রতিদান করুন।

যেহেতু হুজুর (সাঃ) এর জামানা ও পরবর্তিতে সাহাবীদের জামানায় এই সমস্যা তৈরি হয় নাই তো সমাধানও ছিল না। কিন্তু ঈমাম আজম আবু হানিফা (রহঃ) যে ফয়সালা দিযেছিলেন তা আজ মুসলমান ও অমুসলমান সারা দুনিয়া মানতেছে।

এই মাসায়েলের ব্যাপারে উনি ১৩০০ ব্ছর আগে যে সমাধান দিয়েছিলেন তাতে তার প্রখর জ্ঞানের দূরদর্শীতা প্রমাণিত হয়। (...চলবে)

Please Follow, Upvote & Resteem for @mizan570

text.gif

steem.gif

Sort:  

Congratulations!

This post has been upvoted from Steemit Bangladesh, @steemitbd. It's the first steemit community project run by Bangladeshi steemians to empower youths from Bangladesh through STEEM blockchain. If you are from Bangladesh and looking for community support, Join Steemit Bangladesh Discord Server.

If you would like to delegate to the Steemit Bangladesh, you can do so by clicking on the following links:

50 SP, 100 SP, 250 SP, 500 SP, 1000 SP.

YOU ARE INVITED TO JOIN THE SERVER!

@mizan570 purchased a 13.11% vote from @promobot on this post.

*If you disagree with the reward or content of this post you can purchase a reversal of this vote by using our curation interface http://promovotes.com

This post has received a 8.14 % upvote from @boomerang.

Congratulations @mizan570! You have completed the following achievement on the Steem blockchain and have been rewarded with new badge(s) :

You got more than 500 replies. Your next target is to reach 600 replies.

Click here to view your Board
If you no longer want to receive notifications, reply to this comment with the word STOP

You can upvote this notification to help all Steemit users. Learn why here!

YOU JUST GOT UPVOTED

Congratulations,
you just received a 10.73% upvote from @steemhq - Community Bot!

Wanna join and receive free upvotes yourself?
Vote for steemhq.witness on Steemit or directly on SteemConnect and join the Community Witness.

This service was brought to you by SteemHQ.com

Coin Marketplace

STEEM 0.15
TRX 0.03
JST 0.037
BTC 10341.37
ETH 331.98
USDT 1.00
SBD 0.95