এক সাথে তান্দুরি ,মালাই এবং মোটকা চা খাওয়ার অনুভূতি || [10% 𝕭𝖊𝖓𝖊𝖋𝖎𝖈𝖎𝖆𝖗𝖎𝖊𝖘 𝖋𝖔𝖗 @𝖘ʜʏ-ғᴏ𝖝🦊]

in আমার বাংলা ব্লগ4 months ago
আমার বাংলা ব্লগের সকল বাংলাভাষী সদস্যগনকে আমার সালাম এবং আদাপ। সবাই কেমন আছেন? আশা করি সবাই মহান সৃষ্টিকর্তার অশেষ রহমতে অনেক ভালো আছেন। আমিও আপনাদের দোয়ায় এবং মহান সৃষ্টিকর্তার রহমতে অনেক ভাল আছি।সবাইকে আন্তরিকভাবে শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি আমার আজকের ব্লগ।

আমি আজকে কোনো রেসিপি , ফোটোগ্রাফি ,ড্রাই পোস্ট নিয়ে হাজির হয়নি। আমি আজকে হাজির হয়েছি নতুন একটি রিভিউ পোস্ট নিয়ে। আমি আজকে চা প্রেমীদের জন্য চা এর গল্প নিয়ে এসেছি। চলুন যাই মূল গল্পে। আমি তেমন চা খাই না ,তেমন বলতে বলা চলে একে বারে খাওয়াই হয় না। আমি যখন ভার্সিটিতে পড়ি ,তখন আমার বন্ধু বান্ধবী সকলে আমাকে নিয়ে অনেক হাসাহাসি করতো যে আমি চা খেতে পারি না। তো ওদের হাসাহাসি জ্বালাই একদিন গেলাম ওদের সাথে চা এর দোকানে। আমাদের ভার্সিটির পাশে একটা বড় চা এর দোকান ছিল অনেক বড় হাড়িতে চা তৈরি করতো। আমি প্রায় ভাবতাম এত গুলা চা কে খাই?যাই হোক আমরা গেলাম দোকানে আমরা সবাই মিলে চা এর অর্ডার দিলাম। তো কিছু ক্ষণের মধ্যে চা পেয়ে গেলাম। সবাইতো যে যার মতো চা খাচ্ছে ,কিছুক্ষণের মধ্যে দেখলাম সবার চা শেষ ,কিন্তু আমি গরমের কারণে চা মুখেই দিতে পারছি না। তারপর হঠাৎ হাত থেকে অর্ধেক চা পরে গেলো। ওরা খুব হাসাহাসি করলো। তারপর আর কি অর্ধেক চা খেলাম আর অর্ধেক চা পরে গেলো।

মোটকা চা

চা খাওয়ার অনুভতি

270100085_938555263436504_888215989021010665_n.jpg

এই হচ্ছে দোকানের নাম,খুব বেশি আলো নেই।


জায়গাটা বেশি আলো নেই। শুধু মাত্র একটা দুইটা আলো। তাই হয়তো ছবি গুলা অন্ধকার। যাই হোক আমাদের হঠাৎ প্ল্যান হলো আমরা আমরা বাহিরে চা খেতে যাবো। আমার অনেক দিন ধরে ইচ্ছা ছিল মোটকা চা কেমন ,আর স্বাদ কেমন দেখতে যেতে। যাই ভাবা সেই কাজ। আমরা রাজশাহীর সার্কিট রোড এ গেলাম চা খেতে। ওই খানে অনেক রকম চা পাওয়া যায়। তান্দুরি চা ,মালাই চা ,ক্রিম চা ,কাশ্মীরি চা ,মোটকা চা আরো অনেক রকম চা।

270228906_295737542531764_1811071360759818557_n.jpg

এটি বিশেষ একটি চুলা ,এই খানে মাটির কাপ গুলাকে তাপ দেওয়া হয়।

270445021_648862636263204_5425185565618839652_n.jpg

প্রথমে লিকার এবং দুধ জ্বাল দেওয়া হচ্ছে।

270293486_421129899697146_963346622764496645_n.jpg

তারপর এই জারটাতে দুধ নেওয়া হলো

270293486_421129899697146_963346622764496645_n.jpg

তারপর এইটাই বিভিন্ন প্রকারের মসলা দেওয়া হচ্ছে

271523865_955715825039290_1193759606642378064_n.jpg

তারপর লিকারের পানি দেওয়া হচ্ছে

270278016_1749103505280598_4108167079892243190_n.jpg

এই একটা ধাপ বানানো হলো।

270587058_599280967826883_7456908972831442490_n.jpg

পরবর্তী ধাপ হলো গরম কাপগুলা গরম হওয়ার পর এই হাতল দিয়ে উঠানো হচ্ছে।

268491523_455066842746550_5278059764590691132_n.jpg

তারপর এই কাপের আগুন সহ জারটায় ডুবানো হবে।

270860080_338869204756632_9120304366192663929_n.jpg

গরম কাপ ডুবালে ,এই রকম বুদ বুদ ওঠে

271581924_1617314185270063_2988173363844301427_n.jpg

চা তৈরি হয়ে গেলো ,এখন মাঠির কাপে নেয়ার পালা।

269656147_346496703757219_6422445315093663415_n.jpg

এই হচ্ছে তান্দুরি চা

271572946_7279266078780495_5462229782292731235_n.jpg

এই হচ্ছে মালাই চা

চা নিয়ে ব্যাক্তিগত মতামতঃ
আমি প্রায় তিন ধরণের চা পান করেছি। প্রথমে আমরা খেয়েছি তান্দুরি চা ,দাম ছিল ৪০টাকা। তবে আমার কাছে ভালো লাগে নি। এত প্রকারের মসলা দিয়েই কেমন জানি এক অদ্ভুত স্বাদ। তারপর খেয়েছি মালাই চা। এইটার দাম ২৫ টাকা। এইটা আমার ভালো লেগেছে। ক্রিমি ক্রিমি ছিল ,তাই ভালো লেগেছে। আবার আসি মোটকা চা,এইটার দাম ৩৫ টাকা। ওইটা এক মুটামুটি তান্দুরি চা এর মতো ,একটু ভিন্ন। আমার কাছে মোটামুটি ভালো লেগেছে।



আজ এই অব্দি ,আবার আসবো অন্য কোনো ব্লগ নিয়ে ,সেই অব্দি ভালো থাকবেন ,সুস্থ থাকবেন এই প্রত্যাশায় শেষ করছি।

সবাইকে ধন্যবাদ

devicesamsung SM-A217F
Locationrajshahi
photograpy
tea

আমার পরিচয়


আমি রাহিমা খাতুন নেভি। আমি সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং এর উপর B.S .C করেছি। আমার ভালো লাগে নতুন নতুন জিনিস দেখতে এবং শিখতে।আমার বাংলা ব্লগের সাথে সকল নিয়ম কানুন মেনে থাকতে চাই।

271458575_209093134772560_7888518412289734514_n.jpg

271240399_1609761622694608_2904786327938640020_n.png

267982499_674526233926699_1799859951670034610_n.gif

Sort:  
 4 months ago 

ভালো লাগলো আপনার চা খাওয়ার অনুভূতি দেখে। আমার কাছে এই চা অনেক ভালো লাগে। আমাদের এইদিকেও পাওয়া যায়। তবে সবচেয়ে ভালো লাগে নীলা মার্কেট নামক একটা যায়গার এই চা। একবারই খেয়েছিলাম। এখনো মুখে লেগেছে আছে। এতো বেশি মজা হয়েছিলো।

 4 months ago 

ধন্যবাদ ভাইয়া।

 4 months ago 

আপনার চা খাওয়ার এই অনুভূতি আমাদের মাঝে শেয়ার করেছেন। পড়ে খুবই ভালো লাগলো আমি। আগে সকালে আর বিকেলে চা খেতাম। এখন চা খাওয়া অনেকটা কমিয়ে দিয়েছি।চা যত কম খাওয়া যায় ততই ভালো। ধন্যবাদ আপু, মূহুর্তটা শেয়ার করার জন্য।

 4 months ago 

ধন্যবাদ আপু আপনাকে।

 4 months ago 

বাহ দারুন একটা পোস্ট। আমি এই প্রথম দেখলাম এভাবে চা বানানোর পদ্ধতি। আমি কিন্তু আগে কখনো এই চা খাইনি। তবে আপু দেখে মনে হচ্ছে খুবই সুস্বাদু হবে। অনেক সুন্দর ভাবে প্রতিটা ধাপ ফটোগ্রাফি করেছেন। অসাধারণ লেগেছে। তবে আপু আপনি যেই লোকেশন টা লিখে দিয়েছেন, এভাবে হবে না, জায়গার লিংক লোকেশন দিতে হবে। সেটা যদি জানা না থাকে তাহলে অবশ্যই আমার সাথে কথা বলবেন ধন্যবাদ।

 4 months ago 

আপু আমি লিংক দিতে জানি।কিন্তুু আমি পোস্ট শুরুর সময় মনে ছিলো,কিন্তুু পরে কেন জানি ভুলে গেলাম।সরি আপু নেক্সট টাইম আর ভুল হবে না।

Coin Marketplace

STEEM 0.26
TRX 0.07
JST 0.039
BTC 29167.69
ETH 1956.97
USDT 1.00
SBD 2.34