তৃতীয় বর্ষপূর্তি উপলক্ষে বিশেষ প্রতিযোগিতাঃ- স্মৃতিকথা মূলক রচনা।

in আমার বাংলা ব্লগlast month

আসসালামু আলাইকুম

কেমন আছেন সবাই? আশা করি বেশ ভালো আছেন। আমিও আছি আলহামদুলিল্লাহ্ বেশ ভালো আছি। আমি মাকসুদা আক্তার। আমার ইউজার আইডি @maksudakawsar। বাংলাদেশের ঢাকা হতে আপনাদের সাথে আমি যুক্ত আছি। আমি প্রতিনিয়ত চেষ্টা করি আমার লেখার দিয়ে কমিউনিটির বন্ধুদের কে মুগ্ধ করার জন্য। হয়তো বা আমি আপনাদের মত এত ভালো করে লিখতে পারি না। পারি না আমার মনের ভাষা গুলো কে আপনাদের সামনে সঠিক ভাবে লিখার যাদুতে উপস্থাপন করতে। তবুও চেষ্টা করি। তবে নিজেকে আমার বাংলা ব্লগ কমিউনিটির একজন গর্বিত ভেরিফাইড মেম্বার হিসাবে পরিচয় দিতে বশী স্বাচ্ছন্দ বোধ করি।

আসছে আমাদের সবার প্রিয় কমিউনিটি আমার বাংলা ব্লগের তৃতীয় বর্ষপূর্তি। আর এই বর্ষর্পূর্তিকে সামনে রেখে আয়োজন করা হয়েছে নানা রকমের অনুষ্ঠানের। তার মধ্যে রয়েছে বেশ কিছু প্রতিযোগিতাও। আমাদের সম্মানিত ফাউন্ডার @rme দাদা প্রতি বছর আমাদের কথা মাথায় রেখে নানা রকমের আয়োজন করে থাকে। আর এবারের আয়োজন গুলোর মধ্যে একটি আয়োজন হলো-স্মৃতিকথা মূলক রচনা প্রতিযোগিতার আয়োজন। তাই তো কদিন ধরেই ভাবছি আমিও অংশগ্রহণ করবো। সেই জন্যই তো আজ চলে আসলাম প্রিয় কমিউনিটিকে নিয়ে নিজের কিছু কথা মেয়ার করার জন্য।

image.png

Image Source: @hafizullah

সত্যি বলতে সম্মনিত ফাউন্ডার দাদার এমন কিছু উদ্যোগের জন্যই আমরা মাঝে মাঝে আমাদের মনে জমে থাকা প্রিয় কমিউনিটিকে নিয়ে কিছু আবেগ এখানে শেয়ার করতে পারি। তাই তো আজ দাদা কে মনের গভীর হতে জানাই হাজারও কৃতজ্ঞতায় ভরা ভালোবাসা। কারন কমিউনিটিতে ‍যুক্ত হওয়ার পর হতে কত কত যে স্মৃতি কথা রয়েগেছে বুকের মাঝে সেগুলো একটি মাত্র পোস্টে লিখে শেষ করা যাবে না। শেষ করা যাবে না কমিউনিটির এবিবি স্কুলের সকল প্রফেসরদের আন্তরিকতা আর ভালোবাসায় ঘেরা সেসব দিন গুলো। তাই তো আজ নিজের মাঝে কিছু কথা শেয়ার করতে চলে এলাম এখানে।

আমার যাত্রার শুরুর স্মৃতিঃ-

সময়টা সম্ভবত ২০২২ সালের মার্চ। যে কোন মাধ্যম থেকেই হউক প্রিয় আমার বাংলা ব্লগের কথা জানতে পারি। জানতে পারি এখানে বাংলা ভাষায় ব্লগিং করে কিছু ইনকাম করার সুযোগ আছে। কিন্তু এই কমিউনিটি যে এতটা প্রাণোবন্ত সেটা কিন্তু অজানাই থেকে গেল। আর এমন একটি সংবাদ পেয়েই আমি আমার বাংলা ব্লগ কমিউনিটিতে আমার নিজের পরিচিতি তুলে ধরি। কিন্তু দূভাগ্য বশতঃ দুই বারের একবারও আমি ডাক পেলাম না। আমার আবার একটি অভ্যাস। আমি কোন একটি কাজের শেষ না দেখে ছাড়ি না। তাই তৃতীয় বারের মত আমার পরিচিতি মূলক পোস্ট তুলে ধরি এবং প্রতিদিন চেক করতে থাকি। হঠাৎ একদিন দেখি আমাদের প্রিয় @ayrin আপু আমাকে ডিসকোর্ড এর লিংক দিয়ে লিংক আপ করতে বলল এবং নির্ধারিত সময়ে ক্লাসে উপস্থিত হতে বলল।

লেভেলের ক্লাস করার স্মৃতিঃ-

লেভেলে ওয়ানের ক্লাস যেদিন করতে গেলাম সেদিন আমি @shuvo35 ভাইয়াকে স্যার বলে সম্বোধন করায় ভাইয়া আমাকে নিষেধ করেন। তারপর বুঝতে পারি যে এখানকার লেভেলের শিক্ষক গুলো কতটা আন্তরিক। আমার আজও মনে আছে লেভেল-৩ তে যখন পরীক্ষা হলো তখন আমি অনেক অসুস্থ। সবার সাথে আমি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করতে না পারলেও আমাদের সবার প্রিয় @hafizullah ভাই আমার পরীক্ষাটি সময় দিয়ে একা একা নিয়েছে। সেই সাথে আমাকে বেশ কোঅপারেট করেছে যাতে করে আমি কোন রকমে ভয় না পাই। সাধারণ এমন নিঃস্বার্থ ভাবে কোন শিক্ষাক আজ অবধি কোন পরীক্ষা নিয়েছে বলে আমার জানা নেই। তবে কেন যে লেভেল ফোরে এসে ঠেকে গিয়েছিলাম সেটাই বুঝলাম না। প্রায় ছয় মাস আমরা কয়েকজন লেভেল-৪ এ ঝুলে ছিলাম। আর সেই ঝুলে থাকার স্মৃতি যখন মনে হয় তখন একা একাই খিল খিল করে হাসি।

প্রথম সাইফক্স এর ভোট পাওয়ার অনুভূতিঃ-

লেভেলে থাকতে শুনেছি সবাই নাকি ভেরিফাইড ট্যাগ পেলেই সাইফক্স এর ভোট পায়। সেই থেকেই ভিতরে একটি কৌতূহল কাজ করেছে যে সাইফক্সের ভোট দেখতে কেমন হয়। আর সেই জন্যই তো প্রতিদিন অনেক রাত পর্যন্ত জেগে থাকতাম সাইফক্স এর ভোট দেখার জন্য। কিন্তু সেই বেটা তো আর ভোট দেয় না। হঠাৎ একদিন ঘুম থেকে জেগেই দেখি আমার পোস্টে একটি ভোট পড়েছে। তাও আবার সাইফক্সের। সেদিন আমার যে কি আনন্দ হয়েছে সেটা মনে হয় ভিডিগ্রাফি করে আপনাদের কে দেখালে ভালো হতো।

বিপদের বন্ধু আমার বাংলা ব্লগঃ-

সত্যি বলতে মানুষের জীবনে টাকার চাহিদা কখনওই শেষ হবার নয়্ যতই থাকুক না কেন ততই যেন আরও বেশী বেশী টাকার প্রয়োজন হয়ে পড়ে। আমি গত দু বছরে এখান থেকে কোন টাকা তুলি নাই।কারন ইচ্ছে ছিল অনেক বড় একটি এমাউন্ট তুলে আমার একটি ব্যাংক লোন পরিশোধ করবো। কিন্তু কেন জানি মাঝে মাঝে বিপদে পড়ে যাই। আর আমার সেই বিপদ গুলো থেকে আমাকে রক্ষা করে আমার প্রিয় কমিউনিটি থেকে উর্পাজিত সেই সমস্ত অর্থ। যা আমি ইতিমধ্যে বিভিন্ন পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের সাথে শেয়ার করেছি। এ পর্যন্ত আমি যতবার বিপদে পড়েছি ততবারই প্রিয় কমিউনিটি হতে উর্পাজিত সেই অর্থগুলো তাদের হাত বাড়িয়ে দেয় আমাকে সাহায্য করার জন্য। তাই আমার কাছে আমার বাংলা ব্লগ আমার বিপদের বন্ধু।

আনন্দ এবং বিনোদনের সাথীঃ-

কমিউনিটিতে রয়েছে ডিসকোর্ড চ্যানেল। যেখানে রাখা হয়েছে ইউজারদের জন্য একটি বিনোদনের মাধ্যমও। প্রতি সপ্তাহে কমিউনিটি কর্তৃক একটি হ্যাং আউট প্রোগ্রামের আয়োজন করা হয়। যেখানে গান কবিতা এবং কুইজ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে ইউজারদের কে আরও বেশী উৎফুল্ল করে তুলা হয়। তাছাড়া ডিসকোর্ড চ্যানেলের জেনারেল চ্যাটের মাধ্যমে ইউজাররা একে অপরের সাথে এত বেশী পরিচিত হয়েছে যে, মাঝে মাঝে মনে হয় এটাই আমাদের পরিবার। মনে হয় নিজের সুখ আর দুঃখ গুলো খুব সহজেই এখানকার বন্ধুদের সাথে ভাগাভাগি করে নেওয়া যায়।

প্রাণের প্রিয় কমিউনিটির সাথেই থাকতে চাই শেষ অবধিঃ-

গত কিছু দিন বেশ অসুস্থ ছিলাম। ভেবেছিলাম হয়তো আর পারবো না সবার সাথে নিজেকে এই কমিউনিটিতে ধরে রাখতে। কিন্তু না প্রাণের শক্তিতে আর উপর ওয়ালার রহমতে আমি দীর্ঘ দুই মাস অসুস্থ থাকার পরও একটি দিনের জন্যও নিজের পোস্ট হতে বিরত হইনি। নিজের যত কষ্টই হউক না কেন একটি পোস্ট আমার করাই চাই। কারন কমিউনিটির প্রিয় ভাই বোনদের মন্তব্য গুলো আমাকে যে ভাবে অনুপ্রাণিত করে , সেই ভাবে অনুপ্রাণিত করে প্রিয় দাদার দেওয়া ভোট গুলো। আমি প্রতিদিনই অনেক রাত পর্যন্ত চেক করি দাদার কোন ভোট পড়লো কিনা। দাদার ভোট দেখলে ভিতরে কেমন যেন একটা অনুভূতি জাগ্রত হয়। হউক সেটা ছোট বা বড় ভোট। তাহলে আপনারাই বলেন এত অসুস্থতার মধ্যে যে কমিউনিটিকে ছেড়ে একটি দিনও থাকতে পারিনি। পোড়া হাত নিয়ে যে কমিউনিটিতে এক হাতে লিখে পোস্ট শেয়ার করেছি, কি করে সেই কমিউনিটিকে ছাড়া থাকবো? তাই তো আপনাদের সাথেই থাকতে চাই শেষ সময় অবধি। থাকবো ইনশাল্লাহ্।

image.png

শেষ কথা

জানিনা তৃতীয় বর্ষপূর্তি উপলক্ষে স্মৃতিকথা মূলক রচনায় আমার মনের অনুভূতি গুলো আপনাদের কেমন লেগেছে। যদি এতোটুকু আপনাদের মনকে ছুঁতে পারে তাহলেই কিন্তু আমি স্বার্থক। আপনাদের সবার মঙ্গল কামনায় আজ এখানেই শেষ করছি।

image.png

ধন্যবাদ সকলকে
@maksudakawsar

নিজেকে নিয়ে কিছু কথা

আমি মাকসুদা আক্তার। স্টিমিট প্লাটফর্মে আমি @maksudakawsar হিসাবে পরিচিত। ঢাকা হতে আমি আমার বাংলা ব্লগের সাথে যুক্ত আছি। আমি একজন গৃহিনী এবং চাকরিজীবী। তারপরও আমি ভালোবাসি আমার মাতৃভাষা বাংলায় নিজের মনের কথা গুলো আমার বাংলা ব্লগের প্লাটফর্মে শেয়ার করতে। আমি ভালোবাসি গান শুনতে এবং গাইতে। আমি অবসর সময়ে ভ্রমন করতে এবং সেই সাথে সুন্দর কিছু ফটোগ্রাফি নিজের ক্যামেরায় বন্দী করতে ও ভালোবাসি। মাঝে মাঝে নিজের মনের আবেগ দিয়ে দু চার লাইন কবিতা লিখতে কিন্তু আমার বেশ ভালোই লাগে। সর্বোপরি আমি ভালোবাসি আমার প্রাণপ্রিয় মাকে।

image.png

Screenshot_1.png

Sort:  

Thank you, friend!
I'm @steem.history, who is steem witness.
Thank you for witnessvoting for me.
image.png
please click it!
image.png
(Go to https://steemit.com/~witnesses and type fbslo at the bottom of the page)

The weight is reduced because of the lack of Voting Power. If you vote for me as a witness, you can get my little vote.

 last month 

অনেক সুন্দর স্মৃতিচারণ করেছেন। বেশ ভালো লাগলো আমার বাংলা ব্লগ কে ভালোবেসে আপনার এতদিনের কার্যক্রম এবং সুন্দর অনুভূতি প্রকাশ করেছেন দেখে। আসলে আমরা সকলেই কমবেশি নিজেদের মনের মত করে ভালোবাসি আমাদের কমিউনিটিকে। আর তাইতো এতদিনের যাত্রা আমাদের। যাহোক বেশ ভালো লেগেছে আপু আপনার পোস্ট দেখে।

 last month 

ধন্যবাদ ভাইয়া আপনার সুন্দর এবং সাবলীল মন্তব্যের জন্য।

 last month 

আপু আপনার অনুভূতি গুলো পড়ে ভীষণ ভালো লাগলো। সত্যিই অনেক সময় ও ধৈর্য ধরার পর ভেরিফাইড সদস্য হওয়া সম্ভব হয়েছে।আর সাই ফক্স এর ভোট মানেই তো মনের শান্তি।আমিও আপনার মতো অপেক্ষায় থাকতাম সাই ফক্সের ভোটের জন্য। আশাকরি এভাবে ধৈর্য ধরে আমার বাংলা ব্লগ এর সাথে সব সময় থাকবেন।অসংখ্য ধন্যবাদ আপু সুন্দর অনুভূতি গুলো শেয়ার করার জন্য।

 last month 

ধন্যবাদ আপু এমন সুন্দর মন্তব্য করে পাশে থাকার জন্য।

 last month 

আপনার লেখাটি পড়ে কি পরিমাণ ডেডিকেশন যে আপনার এই কমিউনিটির প্রতি রয়েছে আর বেশ অনেকটা আপন করে নিয়েছেন প্রতিটি বিষয়, ডিসকর্ডের আড্ডা আর বেশ সবার সাথেই কমবেশি ভালো সম্পর্ক তৈরি হয়েছে - যা একটি সুন্দর পথচলা তৈরিতে ভূমিকা রেখেছে।

আমার মনে হয় সবচেয়ে বড় পাওয়া বোধহয় একটি গুছানো কমিউনিটি পাওয়া যাতে সবাইই কমবেশি আন্তরিক আর বাংলা ভাষায় ভাব প্রকাশের ভালোলাগায় তৃপ্তি খুঁজে পাওয়ার মাঝে সার্থকতা।

নিজের অনুভূতির এত সাবলীল প্রকাশে খুব আনন্দিত বোধ করছি, সাথে সার্থক যে আপনাদের মতো সহযোগী ব্লগারও পেয়েছি।

সবমিলিয়ে অনেক ধন্যবাদ জানাতে চাই, কিছু মনের কথা শেয়ার করার জন্য। প্রত্যাশা রাখি সামনের দিনে দৃপ্ত পদচারণা বজায় থাকুক, অটুট থাকুক বন্ধন।
অনেক অনেক শুভকামনা, 💐

 last month 

খুব সুন্দর এবং ব্যাখা মূলক মন্তব্য করার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ।

 last month 

আমার বাংলা ব্লগ আমাদের প্রত্যেকের জন্যই ইমোশনের জায়গা। এখান থেকে দূরে থাকা সম্ভব হয়ে ওঠেনা।অনলাইন জগতেও যে একটা পরিবার তৈরি সম্ভব সেটা এখানে না আসলে জানতাম না।ভালো লাগলো আপনার অনুভূতুমূলক পোস্টটি।ধন্যবাদ আপনাকে আপু সুন্দর পোস্টটি শেয়ার করার জন্য।

 last month 

ধন্যবাদ আপু মন্তব্য করে পাশে থাকায়।

 last month 
 last month 

তৃতীয় বর্ষপূর্তি উপলক্ষে বিশেষ প্রতিযোগিতায় আপনি নিজের অনুভূতি গুলো কে বেশ সুন্দর করে তুলে ধরেছেন। এ কথা সত্য যে আপনার উৎসাহে উৎসাহিত হয়ে আমি এই কমিউনিটিতে যোগ দিয়েছি। আপনার প্রতিটি কথাই আমার কাছে বেশ ভালো লেগেছে। ধন্যবাদ আপু সুন্দর করে পোস্টটি আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য।

 last month 

উৎসাহ মূলক মন্তব্য করে পাশে থাকার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ।

Coin Marketplace

STEEM 0.20
TRX 0.13
JST 0.029
BTC 66038.35
ETH 3444.84
USDT 1.00
SBD 2.61