ইমপ্যাক্ট ক্রিকেট ও বাংলাদেশsteemCreated with Sketch.

in Mars Land2 months ago

অনেকেই শ্রীধরণ শ্রীরাম এর ইমপ্যাক্ট ক্রিকেট নিয়ে প্রশ্ন তুললেও আমার কাছে মনে হয়েছে উনি এখন পর্যন্ত সঠিক পথেই এগোচ্ছেন। তবে ওনাকে এবং টিম ম্যানেজম্যান্টকে অবশ্যই কিছু কঠিন ডিসিশন নিতে হবে যদি আমরা বাংলাদেশ ক্রিকেটের কাঙ্ক্ষিত উন্নতি চাই। আজকের ম্যাচটায় দিকে খেয়াল করুন আমরা কিন্তু ম্যাচটা ২১ রানে হেরেছি। ১৬৮ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে আমরা ১৪৬ রানে থেমেছি। এই রান করতে আমাদের ৩ জন ব্যাটার ২৫+ স্কোর করেছেন। অর্থাৎ আর ২ জন ব্যাতার যদি ২০+ ইনিংস খেলতেন তাহলেই হয়তো ম্যাচ আজ আমাদের হতে পারতো।

আজকের খেলায় দেখে মনে হয়েছে সাব্বির কে যথেষ্ট সূযোগ দেয়া হয়ে গেছে। যদিও আমি কারো পেশার বাইরে ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে বাক্যালাপ তেমন একটা পছন্দ করি না কিন্তু সাব্বিরের খেলা দেখে মনে হয়েছে তিনি ক্রিকেট টাকে পেশা হিসেবে আর রাখতে চাচ্ছেন না। তিনি খেলার বাইরের অন্য কিছুর দিকে বেশি মনোনিবেশ করছেন। আজকে তিনি ১৮ বল খেলেছেন সেখানে তিনি করেছেন ১৪ রান সেখানে তিনি যদি ২৬ করে আউট হতেন আমরা মনে হয় ম্যাচে ভালো পজিশনে থাকতাম। অপরদিকে মিরাজ ১১ বলে ১০ এর পরিবর্তে যদি ১৫ রান করতেন তবে আমরা আরো এগিয়ে থাকতাম। এই ছোট ছোট স্কোর গুলো হচ্ছে ইমপ্যাক্ট ফুল ইনিংস যা দেখতে সুন্দর নয় কিন্তু দল জেতার জন্য কার্যকরী । টি২০ ক্রিকেটে আসলে এটাই প্রয়োজন। এর জন্য দলে ভারতের রথী-মহারথী থাকা বাধ্যতামূলক নয়।


800px-Bangladesh_team_on_practice_session_at_Sher-e-Bangla_National_Cricket_Stadium_(1).jpg

বোলিং এর ক্ষেত্রেও আপনি <৮ ইকোনোমিতে বল করতে পারেন তাহলেও আমি মনে করি যেকোন দলকে বেধে রাখা সম্ভব। আপনি যদি ৪ ওভারে ৩২ করে রান দেন তাহলেও পাঁচজন বোলার মিলে ২০ ওভারে ১৬০ রানে আটকাতে পারবে। তবে আজকের খেলায় তাস্কিনের বল দেখে মনে হয়েছে তিনি যথেষ্ট ভাল বল করেছেন। অপরদিকে মুস্তাফিজকে দেখে মনে হয়েছে পাড়ার বোলার। বড় ভাই বল করতে দিয়েছে তাই করছি। আমি যখন ইউভারসিটিতে ক্রিকেট খেলতাম তখন এই ধরণের বোলারদের একটা মজার নাম দেয়া হত। তা হলো প্যাকেট বোলার বোলার। যে বল করতে আসলেই ওভারে ১২-১৫ রান লিক করতো। মুস্তাফিজ এর অবস্থাও অনেকটা তেমন হয়েছে। তাকে আর সূযোগ না দিয়ে অন্য বোলারদের খেলিয়ে দেখা উচিৎ। তাহলেও হয়তো ভালো কিছু হতে পারে। আর না হলে এর চেয়ে খারাপ কিছু হবে না।

ব্যাটিং লাইন আপেও পরিবর্তন আনা উচিৎ। ওপেনিংয়ে মিরাজের সাথে সাকিবকে খেলানো যেতে পারে। আর ইয়াসির রাব্বির হিটিং ক্যাপাবিলিটি ভালোই মনে হয়েছে কিন্তু তার ফিটনেস একটু প্রবলেম মনে হচ্ছে। বডি মুভমেন্ট স্লো। এই বডি মুভমেন্ট বারানো হবে । এর জন্য যা করা দরকার তাই করতে হবে।

যদিও জানি তাড়াতাড়ি ফল আসবে না। কিন্তু এই ইম্প্যাক্টফুল ক্রিকেটের ইমপ্যাক্ট আমরা অনেকটাই আচ করতে পারবো। আর বিসিবির এর মধ্যে ডমস্টিক ক্রিকেট স্ট্রাকচার নিয়ে ভাবা উচিৎ।

Coin Marketplace

STEEM 0.18
TRX 0.05
JST 0.022
BTC 17004.16
ETH 1258.11
USDT 1.00
SBD 2.15